ঢাকা, শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

গরমের শুরুতে সুস্থ থাকবেন যেভাবে


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০২:০৩ পিএম, ১৪ মার্চ ২০১৯, বৃহস্পতিবার
গরমের শুরুতে সুস্থ থাকবেন যেভাবে

বসন্ত শেষ তবে মাঝে মাঝেই মেঘলা আকাশ আর গুমোট গরম পড়ে। হঠাৎ আবার হালকা শীতের ঠাণ্ডা আমেজ পাওয়া যায়। এমন সময়ে সর্দি-কাশি নয়তো নানা রকম ফ্লুয়ের ভাইরাস বেশি ছড়ায়। তাই নিজের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বাড়িয়ে তোলা ও অসুখ এড়ানো ছাড়া অন্য কোনো বিকল্প নেই।

সাধারণত দীর্ঘ দিনের কোনো অসুস্থতা, অনিদ্রা, মানসিক চাপ, অতিরিক্ত মদ্যপান ও ধূমপান সবকিছুই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দেয়ার অন্যতম কারণ হতে পারে। শরীর তার পুষ্টি না পেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উপর তা প্রভাব ফেলে। সুতরাং ব্যায়ামের পাশাপাশি খাবার তালিকায় রাখুন দরকারি কিছু খাবারও।

আপেল সিডার ও মধু

সকালে খালি পেটে আপেল সিডার ভিনেগার ও মধু মিশিয়ে সেটি খান। এতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ফ্লুয়ের ভাইরাস প্রতিরোধের ক্ষমতা আছে।

তেতো খাবার

এই সময়ের ভাইরাস প্রতিরোধে প্রতিদিন খান নিম পাতা, না হয় সজনে ফুল। এতে অ্যান্টিভাইরাল উপাদান রয়েছে যা শরীরকে মজবুত রাখে ও রোগজীবাণুর সঙ্গে লড়তে সাহায্য করে।

পর্যাপ্ত প্রোটিন

যে কোনো রকমের প্রোটিন খাবার খান প্রতিদিন। মাছ, মাংস, সয়াবিন, মুসুর ডাল, ডিম এসব থেকে পাওয়া পুষ্টিগুণ শরীরকে ভিতর থেকে মজবুত করবে শক্তিও যোগাবে।

কাঁচা হলুদ

কাঁচা হলুদ টুকরো করে কেটে চিবিয়ে খান, না হয় বেটে দুধের সঙ্গে মিশিয়ে খান। কাঁচা হলুদের অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল উপাদান শরীরকে অনেক রোগের হাত থেকে বাঁচায়। বিশেষ করে ঠাণ্ডা কফ ও ত্বকের সমস্যা কমাতে কাঁচা হলুদের ভূমিকা অনেক।

সবুজ শাকসবজি ও ফল

এই গরম এই মেঘলা এমন সময়ে ডিহাইড্রেশন হয় অনেক। তাই শরীরে যেন ভিটামিন সি-এর অভাব না দেখা দেয় তাই প্রতিদিন অন্তত ১০০ গ্রাম ওজনের যেকোনো ফল খান এবং তিন বেলাই খান পর্যাপ্ত সবুজ শাকসবজি।

পানি

এই সময় জ্বর, সর্দি-কাশির সঙ্গে ডায়রিয়া, খাদ্যে বিষক্রিয়া ইত্যাদির পরিমান বাড়ে। পানি থেকেই বেশির ভাগ ফুড পয়জন ও হেপাটাইটিসের মতো অসুখ ছড়ায়। তাই পানির বিষয়ে সচেতন হন। পরিষ্কার ফোটানো পানি খান।

অমৃতবাজার/আরএইচ