ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ জানুয়ারি ২০১৯ | ৯ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

১০ মিনিটে শনাক্ত হবে ক্যানসার


অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৮:২৬ পিএম, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার
১০ মিনিটে শনাক্ত হবে ক্যানসার

ক্যানসার হচ্ছে মরণব্যাধি। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায় সঠিক সময়ে রোগ নির্ণয় করতে না পারায় প্রাণ হারায় অনেক মানুষ। সাধারণ রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে ক্যানসার শনাক্ত করা হয়। তবে আপনি জানেন কি মাত্র ১০ মিনিটে শনাক্ত করা যাবে সব ধরনের ক্যানসারের উপস্থিতি।

ক্যানসারের উপস্থিতি জানার জন্য নতুন এক পদ্ধতি আবিষ্কার করেছেন কুইন্সল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্ট্রেলিয়ান ইন্সটিটিউট ফর বায়ো ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড ন্যানো টেকনোলজির একদল বিজ্ঞানী।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, ২০১৫ সালে ক্যানসারে বিশ্বব্যাপী ৮৮ লাখ রোগী মারা গেছেন। প্রতি ছয়জনে মারা গেছেন একজন। হৃদরোগের পরেই ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়।

অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা, ডিএনএ-এর একটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য আবিষ্কার করেছেন, যার উপস্থিতি আছে সব ধরনের ক্যানসারে। আর জটিল রোগ ক্যানসার শনাক্তের জন্য আবিষ্কার করেছেন দুই ধরনের কৌশল।

বিজ্ঞানীদের প্রধান তিন সদস্য দলের একজন হচ্ছেন, প্রবাসী বাংলাদেশি ড. আবু সিনা। যিনি এ বিশ্ববিদ্যালয়ে একজন গবেষক হিসেবে কর্মরত আছেন।

আবু সিনা বলেন, মানবদেহের গ্লুকোজ বা কোলেস্টেরলের পরিমাণ নির্ণয়ের মতোই সাধারণ রক্ত পরীক্ষায় মিলবে ক্যানসার উপস্থিতির তথ্য।

আমরা ডিএনএ এর বিশেষ একটি বৈশিষ্ট্য আবিষ্কার করতে পেরেছি, যাকে বলছি ইউনিভার্সেল ক্যানসার বায়ো মার্কার। যা সব ধরনের ক্যানসারে আছে। পাশাপাশি এই বৈশিষ্ট্য ধরে এমন পদ্ধতি বের করেছি যা দিয়ে সবধরনের ক্যানসার শনাক্ত সম্ভব।

পিএইচডি করতে অস্ট্রেলিয়া আসেন আবু সিনা। দেশটিতে স্থায়ী বসবাস শুরুর আগে তিনি ছিলেন বাংলাদেশের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক। আবু সিনা ও তার দলের আবিষ্কৃত পদ্ধতিতে দুভাবে শনাক্ত করা যাবে ক্যানসার।

চাঁদপুরের ছেলে আবু সিনার বাবা- মা দু’জনই শিক্ষক। স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ব্রিসবেনেই থাকেন তিনি।

অমৃতবাজার/ইকরামুল