ঢাকা, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০১৭ | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

রক্তচাপ কমাতে রসুন


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৪৬ এএম, ০৬ অক্টোবর ২০১৭, শুক্রবার
রক্তচাপ কমাতে রসুন

উচ্চরক্ত চাপ নিয়ে ভীষণ সংকটে রয়েছেন? কোনওভাবেই বাগে পাচ্ছেন না? ওষুধের বাইরে সহজ সমাধান রসুন। নিয়মিত রসুন খেলেই রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকবে। ছয় উপায়ে রসুন খেতে পারেন। এই উপায় ব্যবহার করে রসুন খেতে পারেন নিয়মিত...

কাঁচা রসুন:
তাজা রসুন কাঁচা খেলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রন করা যায়। রসুন কাঁচা চিবিয়ে খেলে ১-২ ঘণ্টার মধ্যে তা রক্তে কার্যকর হয়। প্রতিদিন ১-১.৫ গ্রাম রসুন খেলে রক্তচাপ অনেকাংশেই নিয়ন্ত্রন করা সম্ভব।

রসুনের গুঁড়া:
প্রতিদিন ৬০০-৯০০ গ্রাম রসুনের গুঁড়া সেবন করলে উচ্চ রক্তচাপ ৯-১২ শতাংশ কমে যায়। উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রনে রসুনের গুঁড়া একটি প্রাকৃতিক ওষুধ বলা যেতে পারে।

রান্না করা রসুন:
রসুন রান্না করার পূর্বে পিষে খোলা জায়গায় ১০ মিনিট রেখে দিলে এর ভেতর বিদ্যমান উপাদানগুলো রক্তে ছড়াতে সহায়তা করে। না হলে সরাসরি রান্নায় এরা কর্মক্ষমতা হারায়।

রসুন কুচি:
রসুন কুচি কুচি করে কেটে সালাদের সাথে মিশিয়ে খেলে দারুন উপকার পাওয়া যায়। সালাদের সাথে রসুন আপনার প্রতিদিনের রকমারি খাবারের একটি হতে পারে।

রসুনের তেল:
ভাজা রসুনের কয়েকটি টুকরা সামান্য গরম অলিভ অয়েলে ৩-৫ মিনিট ভেজে তা পাউরুটি দিয়ে খেলে খুব ভালো উপকার পাওয়া যায়।

রসুনের চা:
চায়ের সাথে মধু মিশিয়ে তার সাথে সামান্য রসুন দিয়ে প্রতিদিন খেলে উচ্চ রক্তচাপ থেকে দূরে থাকা যায়।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া:
উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের অন্যান্য প্রাকৃতিক ওষুধের মত রসুনও মাঝে মাঝে অসস্তির সৃষ্টি করতে পারে। কাঁচা রসুন হজমে বাধা সৃষ্টি করতে পারে এবং খালি পেটে খেলে পেট ফাঁপা ও এসিডিটি হতে পারে। যদি রসুনে এলার্জি থেকে থাকে তাহলে বমি বমি ভাব, বমি, মাথা ব্যাথা, এক্সিমা এবং নাক ডাকার মতো সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে।
    
অমৃতবাজার/শাওন

Loading...