ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল ২০২০ | ১৯ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

রান্নাঘরের তেলচিটচিটে ভাব দূর করবে কিচেন হুড


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৪:১২ পিএম, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বুধবার
রান্নাঘরের তেলচিটচিটে ভাব দূর করবে কিচেন হুড

সারাদিনের কর্মব্যস্ত দিন শেষেও আমাদের দেশের কর্মজীবী নারীদের কাজ যেনো ফুরোয় না। সকালে সবার জন্যে খাবার তৈরি, বাচ্চাদের স্কুলে পাঠানোর জন্য তৈরি, নিজের অফিসের প্রস্তুতি, সারাদিনের কর্মব্যস্ততার পরও আবার রাতের খাবারের আয়োজনের চিন্তা জুড়ে বসে মাথায়। আর যান্ত্রিক শহরের ছোট্ট অ্যাপার্টমেন্টের আরো ছোটো রান্নাঘরে প্রতিদিনের রান্নার কাজ সারাটা খুবই কষ্টকর হয়ে ওঠে।

বেশিরভাগ সময় স্বামী-স্ত্রী দুজনই চাকরিজীবী হলেও সন্তানের দেখাশোনা থেকে শুরু করে তাদের পড়াশোনাসহ বাসার অধিকাংশ দায়িত্বই এসে পড়ে একজন মায়ের কাঁধে। ঘরদোর ঘোছানো, কাপড় ধোয়া, থালাবাসন পরিস্কারের পরও প্রতিদিনের রান্নার কাজটা সেরে নেয়া তাদের জন্যে রীতিমতো একটা অগ্নিপরীক্ষা।

ঢাকায় বেশিরভাগ সময়ই ভবনগুলো একটা আরেকটার খুব কাছাকাছি থাকায় খোলা যায় না এসব রান্নাঘরের জানালা। অবাধে বাতাস চলাচলের অভাবে তাই রান্নাঘরের ভেতর গরমে প্রাণ যায় যায় অবস্থা। আর সারাদিনের এতো কাজের পর কারই বা ভালো লাগবে গরম একটা পরিবেশে রান্না করতে?

এ অবস্থায় সমাধান হিসেবে কাজ করতে পারে কিচেন হুড। আগের জায়গা সংকট থাকার কারণে রান্নাঘরের চুলার ওপরে খোলা জায়গা থাকতো যেখানে চিমনি বসিয়ে চুলার তাপ ও বাষ্প বের করা হতো। কিন্তু বর্তমান সময়ে রান্নাঘরের আয়তন অনেকটাই ছোটো হয়ে এসেছে। এতে ধোঁয়া বের হতে গিয়ে দেয়াল বাধা পেয়ে পুরো ঘরের মধ্যেই ছড়িয়ে পড়ে। এছাড়াও, সাধারণত  চুলার তাপের সাথে সাথে বিভিন্ন তেল-মসলা বাষ্প হয়ে রান্নাঘরের দেয়াল এবং সিলিং এ জমে  তেল চিটচিটে হয়ে পড়ে। এখন এ সমস্যার সমাধান হয়ে এসেছে কিচেন হুড। কিচেন হুড রান্নার ধোঁয়া ও বাষ্প বাইরে বের করে দিয়ে একইসাথে রান্নাঘরকে রাখে পরিস্কার এবং রান্নাকে করে তোলে সহজ। বাজারে বিভিন্ন আকৃতি ও ব্র্যান্ডের কিচেন হুড পাওয়া যায়। দামেও আছে তারতম্য।  

রান্নাঘরের কাজকে সহজ করতে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে সিঙ্গারের কিচেন হুড। দুই ধরনের গতিবিশিষ্ট এই হুডে ব্যবহার করা হয়েছে শক্তিশালী ১৫০ ওয়াটের মোটর, যা ঘণ্টায় ১৮০ কিউবিক মিটার বাতাস প্রবাহ করতে সক্ষম। এর ফলে রান্নাঘরের তাপমাত্রা কমে আসবে স্বস্তি। রকার সুইচ কন্ট্রোলের মাধ্যমে হুডের ফ্যানের গতি বাড়ানো বা কমানো যাবে। তাছাড়া, অন্ধকারে বা অল্প আলোতে নিশ্চিন্তে কাজ করতে হুডটিতে সংযোজন করা হয়েছে ২ ওয়াটের একটি এলইডি লাইট।

কিচেন হুড ব্যবহারে অনেক সময় চিন্তা থাকে তেলচর্বি পরিস্কার করা নিয়ে। সিঙ্গারের এই হুডে ব্যবহার করা হয়েছে অ্যালুমিনিয়ামের ৩ স্তরের জালের বুনন, যা পরিস্কার করা যাবে অনায়াসেই। দৈর্ঘ্যে ৬০০ মিলিমিটার, প্রস্থে ৪৮০ মিলিমিটার এবং উচ্চতায় মাত্র ১০৫ মিলিমিটার এই হুডটি আকারে খুব বড় না হওয়ায় সহজেই রান্নাঘরে স্থাপন করা যাবে। গ্রাহকদের ব্যস্ততার কথা মাথায় রেখে অনলাইনেই এই কিচেন হুড অর্ডার দেয়ার সুবিধা রেখেছে সিঙ্গার। অনলাইনে অর্ডারে ৭ দিনের মধ্যে প্রতিষ্ঠানটি বিনামূল্যে কিচেন হুড বাসায় শুধু পৌঁছেই দেবে না, কোনও খরচ ছাড়া রান্নাঘরে ইনস্টল করে দিবে। এর পাশাপাশি গ্রাহকদের সুবিধার্থে, আগের থেকে কিচেন হুডের মূল্যহ্রাসও করেছে সিঙ্গার। পূর্ববর্তী মূল্য ৬ হাজার ৯৯০ টাকার পরিবর্তে হ্রাসকৃত মূল্য ৬ হাজার ৪৯০ টাকায় মিলবে এই কিচেন হুড।

অমৃতবাজার/এসএইচ