ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ | ১ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

এই ৫ ধরনের নারীদের থেকে সাবধান!


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৬:১৩ পিএম, ১৮ জুলাই ২০১৮, বুধবার
এই ৫ ধরনের নারীদের থেকে সাবধান!

বিশ্বকবি রবিন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছিলেন, যাহা কিছু সুন্দর চির কল্যাণকর। অর্ধেক তার করিয়াছে নারী, বাকি অর্ধেক নর। হ্যা রবি ঠাকুরের সেই অমোঘ বাণীই সত্যি। পৃথিবী সৃষ্টির শুরু থেকেই নারীরা মা, বোন, স্ত্রী, কন্যার সম্পর্কের বাইরেও বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রেখে চলেছেন। যা অবশ্যই প্রশংসার দাবিদার।

তবে একদল মনোবিজ্ঞানীরা বেশ কিছু নারী-পুরুষের স্বভাব বিশ্লেষণ করেই এই সাবধানতার বাণী শুনিয়েছেন। বহু পুরনো প্রবাদকে অনুসরণ করে বলা যেতে পারে, ‘Prevention is better than cure’। দেখে নিন কোন পাঁচ ধরনের নারীদের থেকে একটু দূরে থাকা শরীর-মন উভয়ের পক্ষে ভালো।

# এ জগতে শুধু তুমি আর আমি: এটা যদি স্বভাব হয়, তাহলে সাবধান হওয়া বিশেষ জরুরি। যদিও প্রথমে এদের দেখে মনে হয়, এরা খুব স্বাধীনচেতা। কিন্তু অনেক সময় সম্পর্ক গভীরতা না পেলে বা বিয়ে না হওয়া পর্যন্ত এদের স্বভাব ঠিক মতো ধরা পড়ে না। কিন্তু যখন এরা খাপ খুলতে শুরু করেন তখন বিপদ পদে পদে।

মনোবিদরা জানান, এরা সাধারণত নিরাপত্তাহীনতা থেকেই এমন হন। প্রচন্ড পজেসিভ হন। ফলে ‘বাকি পৃথিবী গোল্লায় যাক, তুমি শুধু আমায় দেখো’ অ্যাটিটিউড সম্পর্কের ভিত টলিয়ে দিতে পারে। কখনও কখনও অতিরিক্ত স্বার্থপরও হয়ে যান এরা।

# মুখে কিছু বোলো না: ‘তুমি এটা বুঝতে পারলে না? এই সামান্য ব্যাপারটাও তোমায় বলে দিতে হবে?’ ‘সব সময় আমি বলব কেন, তুমি বুঝে নিতে পারো না?’ এ সব প্রশ্নমালার ভিড় যাদের মুখে থাকে তাদের থেকেও সাবধান। এরা মনে করেন, এক জন পুরুষকে সব কিছু বুঝতে হবে। মনের ‘গোপন কথাটি’ প্রেমিক বা বরের কাছে ‘রবে না গোপনে’। এরা পদে পদে আপনার পরীক্ষা নিতে পারেন। সব সময় দেখতে চান, আপনি তার মতো করে ভাবছেন কিনা। আর যদি পান থেকে চুন খসে, তো….। যাই হোক, যদি আপনি মনের ভাষা বুঝতে অসাধারণ দক্ষ হন, তবে নির্ভয়ে এগিয়ে যান।

# আমি বলব, তুমি শুনবে: মুখে খই ফুটছে নিরন্তন। সব সময় সব বিষয় নিয়ে কথা বলা বা নাক গলানোর জন্য অনেক সময়ই পরিস্থিতি না বুঝে আলটপকা মন্তব্য করা এদের স্বভাব। আর এ স্বভাবের জন্য আপনাকে অনেক অস্বস্তিকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হতে পারে। যদি বিয়ে হয়ে যায়, তবে এরা সংসারের শেষ কথা বলতেই ভালোবাসেন। সেখানে অন্য কারও কথার কোনও গুরুত্ব নেই।

# আই অ্যাম দ্য বেস্ট: ‘আমি এটাও বুঝি, আমি ওটাও বুঝি। আমি এটা ভালো পারি, আমি ওটা তো সব থেকে ভালো পারি। আমার থেকে ভালো কেউ নেই।’ মহিলাদের এ রকম স্বভাব খুবই বিপজ্জনক। সবাই নয়, তবে কর্মক্ষেত্রে যে সব মহিলারা একটু উপরের দিকে চাকরি করেন, তারা সাধারণত এ রকম ব্যবহার করে থাকেন। অন্যকে হেয় করে এরা একটু আত্মপ্রসাদ লাভ করেন। সে তালিকা থেকে আপনিও বাদ পড়বেন না। একটা কথা এদের মুখে প্রায় আঠার মতো লেগে থাকতে পারে, ‘আমি জীবনে সফল, আমার কাউকে প্রয়োজন নেই।’

# আমি এমনই, আমি তেমনই: এরা সময় বিশেষে ইমোশনের বন্যা বইয়ে দিতে পারেন। আবার কখনও চূড়ান্ত বাস্তবসম্মত কথা বলতে পারেন। মনোবিদদের মতে, বাকিদের থেকে এ ধরনের মহিলাদের সঙ্গে সম্পর্ক টেঁকার সম্ভাবনা একটু বেশি। তবে এরা একটু গোঁয়ার প্রকৃতির হন। যেটা করবেন মনে করেন, করে ছাড়েন। তাতে খারাপ হোক ভালো হোক সেটা বিচার্য বিষয় নয়। এদের প্রধান সমস্যা, এরা সম্পর্কের পর নিজেরা বিশেষ পাল্টাতে বা অ্যাডজাস্ট করতে রাজি নন। তবে সব সময় এটা চাইবেন উল্টো দিকের লোকটি পাল্টান বা অ্যাডজাস্ট করুন।

অমৃতবাজার/সুজন