ঢাকা, রোববার, ১৯ আগস্ট ২০১৮ | ৪ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ক্যারিয়ারে যে বিষয়গুলো জানা জরুরি


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৪:২৬ পিএম, ১৬ মে ২০১৮, বুধবার | আপডেট: ০৪:২৭ পিএম, ১৬ মে ২০১৮, বুধবার
ক্যারিয়ারে যে বিষয়গুলো জানা জরুরি

ক্যারিয়ার নিয়ে আপনি যদি হতাশ হয়ে পড়েন তাহলে ক্যারিয়ার পরিবর্তনের বিকল্প নেই। তবে এজন্য প্রয়োজন যথাযথভাবে চিন্তাভাবনা ও কয়েকটি বিষয়ের প্রতি মনোযোগী হওয়া। নিম্নে যারা চাকরি করছেন বা চাকরি খুঁজছেন তাদের সুবিধার্থে তেমনই কয়েকটি বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হলো:

অন্যের সঙ্গে নিজের যোগ্যতার তুলনা করুন: চাকরির আগেই দক্ষতা নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে নিজের তুলনার অভ্যাস ইতিবাচক। অনেকেই মনে করেন, চাকরির অাগে এসবের কি দরকার। প্রয়োজন অাছে, কারণ অন্যের সঙ্গে তুলনার মাধ্যমেই নিজের যোগ্যতা যাচাই করে নিতে পারবেন। কোথায় কি ঘাটতি আছে তা পূরণ করে নিতে পারবেন। সেইসঙ্গে নিজের দক্ষতাকে আরো শাণিয়ে নেওয়া যায়। চাকরিতে প্রবেশের পরই নিজের দক্ষতা নিয়ে সহকর্মীদের তুলনা করতে থাকুন। নিজেকে বুঝতে এই বিশ্লেষণ অতি জরুরি।

নিজের কাজ বুঝে নিন: ধরুন, একটি প্রতিষ্ঠানে মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ হিসেবে চাকরি নিয়েছেন। শিক্ষাজীবনে আপনি এর সম্পর্কে নানা শিক্ষা অর্জন করেছেন। কিন্তু পুঁথিগত বিদ্যার সঙ্গে বাস্তবতার বেমিল হওয়াটা বিচিত্র কিছু নয়। যেকোনো পরিস্থিতিতে নিজেকে মানিয়ে নেওয়ার মানসিকতা গড়ে তুলুন। চ্যালেঞ্জ গ্রহণে মনটাকে ইতিবাচক করে তুলুন।

মেধাবীদের সংস্পর্শে থাকুন: অন্যের থেকে আপনার কাজ সম্পূর্ণ ভিন্ন হলেও অফিসের অন্য বিভাগের মেধাবী ও পরিশ্রমীদের সঙ্গে সময় কাটান। তাদের কাছ থেকে দূরে দূরে থাকবেন না। যেকোনো কাজের সম্ভাবনাময় মানুষদের সংস্পর্শে থাকলে নিজেকে দ্রুত এগিয়ে নিতে পারবেন। অন্য বিভাগের মানুষও আপনার সামর্থ্যে রসদ জোগাতে ভূমিকা রাখতে পারেন।

প্রফেশনাল নেটওয়ার্ক গড়ুন: কোনো একটি চাকরিতে যোগ দিয়ে ওই চাকরি নিয়ে পড়ে থাকাটা বোকামি। সহক্ষেত্রের প্রফেশনালদের সঙ্গে নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার চেষ্টা করুন। কমিউনিকেশন বিপ্লবের এই যুগে কর্মপরিবেশ বোঝা ও নতুন নতুন চাকরি খোঁজা এবং পাওয়ার ক্ষেত্রে নেটওয়ার্কিং বড় ভূমিকা রাখে। অনেকে এই কাজটিকে বেশ ঝামেলার মনে করেন। কিন্তু প্রফেশনাল নেটওয়ার্কিং যথাযথভাবে করতে পারলে পেছন ফিরে তাকাতে হবে না। তাই নেটওয়ার্কিং গড়ে তুলুন।

প্রশ্ন করতে শিখুন: প্রথম চাকরি মানেই শেখার সবে শুরু। তাই একটা-দুইটা প্রশ্ন নয়, কাজসংশ্লিষ্ট যেকোনো প্রশ্ন ঊর্ধ্বতনদের উদ্দেশে নির্ভয়ে ছুড়ে দিন। দ্রুত উন্নয়নের পেছনে শর্ত হিসেবে কাজ করে জানার আগ্রহ এবং প্রশ্ন উত্থাপন করা।

শিক্ষা ও জ্ঞানের শেয়ার করুন: যা শিখেছেন তা নিজের মধ্যে চেপে রাখতে নেই। এগুলো সহকর্মীদের সঙ্গে শেয়ার করুন। কোনো একটি চাকরিতে হয়তো নতুন যোগ দিয়েছেন। এর সম্পর্কে যা যা জানেন, তা অন্যদের সঙ্গে শেয়ার করলে ভুলত্রুটি বেরিয়ে আসবে। আপনি যা জানেন তা শুধু নিজের মধ্যে তালাবদ্ধ করে রাখবেন না। অন্যকে নিজের জ্ঞানের পরিধি জানান। কী জানেন তাই অন্যদের জানানোর চেষ্টায় থাকুন। অন্যদের কাছ থেকেও শেখার চেষ্টা করুন।

অমৃতবাজার/সুজন