ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০ | ২৪ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

২৪ বোতল অ্যাসিড কিনেছেন দীপিকা


অমৃতবাজার বিনোদন

প্রকাশিত: ০৯:২৮ পিএম, ১৬ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার | আপডেট: ১০:৩৮ পিএম, ১৬ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার
২৪ বোতল অ্যাসিড কিনেছেন দীপিকা ছবি: সংগৃহীত

অদ্ভুত এক কান্ড করে বসেছেন জনপ্রিয় ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। ২৪ বোতল অ্যাসিড কিনেছেন তিনি। আর সেসবের ছবি এবং ভিডিও শেয়ার করেছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। কিন্তু কেন এমন কান্ড? কি মেসেজ দিতে চাইছেন বলিউড এর ড্রিমগার্ল?

আসলে অভিনব একটি স্টিং অপারেশন চালিয়েছিলেন দীপিকা। তারই ভিডিও শেয়ার করেছিলেন তিনি। সঙ্গে ছিল তার সদ্য মুক্তি পাওয়া চলচ্চিত্র `ছপাক`র টিম। অভিযানে নেতৃত্ব দিয়েছেন অভিনেত্রী। ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। ভিডিওতে দেখা যায়, এখনও খোলা বাজারে অ্যাসিড কেনা কত সোজা। মুম্বাইয়ে একদিনের কয়েক ঘণ্টায় ২৪ বোতল কেনেন দীপিকার টিম।

কিন্তু কেন এই অপারেশন? ঘটনা হচ্ছে, ভারতে খোলা বাজারে অ্যাসিড বিক্রি না করার হুকুম আছে। সরকারিভাবে ওপর কোড়া নির্দেশনা আছে এ ব্যাপারে। অ্যাসিড হামলা রুখতে এই নির্দেশিকা জারি করেছিল শীর্ষ আদালত। কিন্তু সে সব আইনের তোয়াক্কা না করে চলছে অ্যাসিড বিক্রি। এমনকি অ্যাসিড কিনলে পরিচয় পত্র দেখার নিয়মও রয়েছে। কিন্তু এই নিয়ম কোথাও মানা হয় না। সেই বিষয়টিই উঠে এসেছে বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোনের এই অভিযানে।

দীপিকা গাড়িতে বসেছিলেন। হাতে ল্যাপটপ। দুই ক্যামেরাম্যান ও অন্য সদস্যরা ছিলেন আলাদা। তারা ব্যবসায়ী, শিক্ষার্থী, গৃহবধূ, মদ্যপ, গুণ্ডা সেজে অ্যাসিড কিনতে যান। একজন দোকানদার শুধু প্রয়োজনীয় কাগজ ছাড়া অ্যাসিড দিতে রাজি হননি। বাকিরা সবাই দিয়ে দেন। যা দেখে হতবাক দীপিকা। সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমায় তার চরিত্র এক অ্যাসিড আক্রান্ত তরুণীর। নাম মালতী। অ্যাসিড আক্রান্ত লক্ষ্মী আগরওয়ালের জীবনের গল্প নিয়ে এই ছবি বানিয়েছেন মেঘনা গুলজার।

এই `সামাজিক পরীক্ষা` সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে দীপিকা বলেছেন, এ সব বাজারে বিক্রি না হলে কেউ আক্রান্ত হতো না। কেউ অ্যাসিড ছুঁড়তে পারত না। শুরুতেই দীপিকা বলেন, কেউ যদি আপনাকে প্রপোজ করে, আর আপনি `না` বলেন, তা হলে গলার জোর বাড়ান। কেউ যদি হেনস্তা করে, তাহলে আপনার অধিকারের জন্য লড়াই করুন।

অমৃতবাজার/এসএইচএম