ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০ | ১৭ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পাপিয়া ১৫ দিনের রিমান্ডে


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৪:২০ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, সোমবার | আপডেট: ০৫:৩০ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, সোমবার
পাপিয়া ১৫ দিনের রিমান্ডে ছবি: সংগৃহীত

আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক শামীমা নূর পাপিয়া ও তার স্বামী মফিজুর রহমান ওরফে সুমন চৌধুরী ওরফে মতি সুমনকে তিন মামলায় মোট ১৫ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

এছাড়া অপর দুই আসামি সাব্বির খন্দকার ও শেখ তায়্যিবাকে বিমানবন্দর থানার মামলায় পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

আজ সোমবার দুপুরে বিমানবন্দর থানায় দায়ের করা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো.কায়কোবাদ কাজী আসামিদের আদালতে হাজির করেন। একইসঙ্গে সুষ্ঠু তদন্তের জন্য আসামিদের প্রত্যেকের ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন করেন।
আসামিপক্ষের আইনজীবী ইলতুৎমিস সওদাগর অ্যানী,মশিউর রহমান চৌধুরী মানিকসহ আরও অনেকে রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষ জামিনের বিরোধিতা করে রিমান্ডে দাবি করেন।

ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ উর রহমান শুনানি শেষে আসামিদের পাঁচ দিন করে রিমান্ডের আদেশ দেন। এছাড়া শেরেবাংলা নগর থানার পৃথক দুই মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা মামলার সুষ্ঠু তদন্তে জন্য ১০ দিন করে রিমান্ডের আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক পাপিয়া ও তার স্বামীকে দুই মামলায় প্রত্যেককে ১০ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে শামিমা নুর পাপিয়াসহ চার জনকে আটক করে র‌্যাবের সদস্যরা। এসময় তাদের কাছ থেকে জাল টাকা, নগদ টাকাসহ দেশি-বিদেশি মুদ্রা উদ্ধার করা হয়।

আটকের পর থেকে পাপিয়াকে নিয়ে বের হতে থাকে একের পর এক তথ্য। রাজনীতির অন্তরালে নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের কথা বের হতে শুরু হয়েছে। মুখ খুলতে শুরু করেছে সাধারণ মানুষ। সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি ও পতিতাভিত্তিক ব্যবসার পাশাপাশি ব্ল্যাকমেইল করে গড়ে তুলেছেন কোটি কোটি টাকার সাম্রাজ্য। অনৈতিক কার্যকলাপের ভিডিও ধারণ করে ধনাঢ্য ব্যক্তিদের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নেয়াই তাদের প্রধান পেশা বলে অনেকে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করছেন।

অমৃতবাজার/এসএস