ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯ | ৩ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

আবরারকে হত্যার স্বীকারোক্তি দিয়েছে ইফতি


অমৃতবাজার রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৯:১৯ পিএম, ১০ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
আবরারকে হত্যার স্বীকারোক্তি দিয়েছে ইফতি

 

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদের হত্যার কথা স্বীকার করল বুয়েট ছাত্রলীগের সাবেক উপসমাজসেবা সম্পাদক ইফতি মোশাররফ সকাল। ঢাকা মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট সাদবির ইয়াসির আহসান চৌধুরী ঢাকা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে এই আসামি। আজ বৃহস্পতিবার সকালের জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়।

আবরার হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি সকাল। এরইমধ্যে ছাত্রলীগ থেকে তাকে বহিষ্কার করেছে। গত ৮ অক্টোবর তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর তাকে রিমান্ডে নেয়। রিমান্ডে থাকাবস্থায় সে স্বীকারোক্তিমূলক জাবনবন্দি দিয়েছে।

আজ দুপুরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক ওয়াহিদুজ্জামান তাকে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে জবানবন্দি গ্রহণের আবেদন জানান। এরপর ম্যাজিস্ট্রেট তার জবানবন্দি গ্রহণ করেন। জবানবন্দি শেষে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেওয়ার জের ধরে আবরার ফাহাদকে রোববার (৬ অক্টোবর) রাতে ডেকে নিয়ে যায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এরপর রাত ৩টার দিকে শেরেবাংলা হলের নিচতলা ও দুইতলার সিঁড়ির করিডোর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পরদিন সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে আবরারের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ লাশের ময়নাতদন্ত করেন। তিনি বলেন,‘ছেলেটিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

এই ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে ১৯ জনকে আসামি করে রাজধানীর চকবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। সন্ধ্যা পর্যন্ত ১৬ জন ছাত্রলীগ নেতাকে আটক করেছে পুলিশ।

অমৃতবাজার/এএস