ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯ | ৮ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

হত্যা মামলার আসামীর জামিনের পর আইনজীবীকে মারধর


অমৃতবাজার রিপোর্ট 

প্রকাশিত: ০৬:৫৭ পিএম, ১৬ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার
হত্যা মামলার আসামীর জামিনের পর আইনজীবীকে মারধর

 

মাদারীপুরের এক হত্যা মামলায় হাইকোর্টে আগাম জামিন পাওয়ায় বাদীপক্ষের মারধরের শিকার হয়েছেন মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার বাজিতপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম হাওলাদার। তবে পরিস্থিতি শান্ত করতে গিয়ে সিরাজুলের আইনজীবী আবদুল আউয়ালকেও মারধরের স্বীকার হয়েছেন।

 আজ মঙ্গলবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ভবনের দ্বিতীয় তলায় এ ঘটনা ঘটে। তবে ঘটনার পর হামলাকারী জুয়েল নামের এক যুবককে আটক করেছে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি।

সমিতির সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকন এ ঘটনায় সিদ্ধান্ত নিতে ইউপি চেয়ারম্যান, আইনজীবী আবদুল আউয়াল ও হামলাকারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। সিরাজুল ইসলাম হাওলাদার বাজিতপুরের আওয়ামী লীগ সমর্থিত ইউপি চেয়ারম্যান। গত ৯ মে মাদারীপুরের রাজৈরের বাজিতপুরের মজুমদার বাজার এলাকায় মুরগী ব্যবসায়ী সোহেল হাওলাদার (৩২) নামে এক ব্যবসায়ীকে পূর্ব শত্রুতার জের থেকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। সম্পর্কে তারা চাচাতো ভাই।

এ ঘটনায় সিরাজুল ইসলামকে প্রধান আসামি করে রাজৈর থানায় মামলা করার পর থেকে তিনি পলাতক ছিলেন। এরপর আজ তিনি হাইকোর্টে এসে আগাম জামিন পান। কিন্তু জামিনের আদেশের পর সিরাজুল ইসলাম আইনজীবীর কক্ষের দিকে অগ্রসর হওয়ার সময় জুয়েল, বাচ্চু সহ বাদীপক্ষের লোকেরা আক্রমণ করে। এক পর্যায়ে সিরাজুলকে বাঁচাতে তার আইনজীবী এগিয়ে আসলে তাকেও মারধর করা হয়।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সুপারিনটেনডেন্ট (তত্ত্বাবধায়ক) নিমেষ চন্দ্র দাস জানান ওই ঘটনায় জড়িতদের আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর হাতে তুলে দেয়ার বিষয়ে বারের সদস্যরা আলোচনা করছেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানা যাবে।

অমৃতবাজার/এএস