ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯ | ৬ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

অনিবন্ধিত চালকের সংখ্যা জানাতে বিআরটিএকে হাইকোর্টের নির্দেশ


অমৃতবাজার রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৪:৫৩ পিএম, ২৪ জুন ২০১৯, সোমবার
অনিবন্ধিত চালকের সংখ্যা জানাতে বিআরটিএকে হাইকোর্টের নির্দেশ

সারাদেশে মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও লাইসেন্স নবায়ন করেনি এমন অনিবন্ধিত গাড়ীর সংখ্যা ৪ লাখ ৫৮ হাজার ৩৬৯টি। এছাড়া শুধুমাত্র ঢাকাতেই রয়েছে ১ লাখ ৬৮ হাজার ৩০৮টি গাড়ি।

তবে ফিটনেসবিহীন গাড়ি ও অনিবন্ধিত চালকদের বিষয়ে সঠিক তথ্য না দিতে পারায় আগামী ২৩ জুলাইয়ের মধ্যে বিআরটিএকে এ বিষয়ে প্রতিবেদন দাখিল করতে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

সোমবার সকালে হাইকোর্টের তলবে বিআরটিএর পরিচালক আদালতে হাজির হলে ফিটনেসবিহীন গাড়ি ও লাইসেন্সহীন ড্রাইভারদের সংখ্যা জানতে চায় আদালত। এ সময় তিনি সঠিক তথ্য না দিতে পারায় বিআরটিএর প্রতি চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট।

পরে লাইসেন্স নিয়ে নবায়ন না করা গাড়ি ও চালকের বিস্তারিত তথ্য আগামী ২৩ জুলাইয়ের মধ্যে হাইকোর্টে দাখিল করতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে ঢাকাসহ সারাদেশে ফিটনেসহীন গাড়ি এবং লাইসেন্সহীন চালকের বিরুদ্ধে বিআরটিএ কী ব্যবস্থা নিয়েছে তাও জানাতে হবে। হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই দিন ঠিক করেন।

শুনানিতে আদালত বলেন, স্বাধীনতার এতো বছরেও দুর্নীতির হাত থেকে রেহাই পায়না দেশ। ‘রুল অব ল’ দেশে নেই বলে মন্তব্য করেন হাইকোর্ট। ‌দেশটা‌কে একটা শৃঙ্খলার ম‌ধ্যে আন‌তে মন্তব্য হাই‌কো‌র্টের। আগে সকালে হাইকোর্টের তলবে হাজির হয়েছেন বিআরটিএ`র পরিচালক।

দেশের সড়কের বেহাল দশা সম্পর্কে আদালত বলেছেন, আমরা স্বাধীনতা অর্জন করেছি কি দেশের সড়কে বেহাল দশার জন্য। সিঙ্গাপুরের দিকে তাকান। আমাদের কাছাকাছি সময়ে স্বাধীনতা অর্জন করার পরও তারা কত উন্নতি করেছে। সিঙ্গাপুরে কি বাংলাদেশের মতো দুর্ঘটনা ঘটে? বাংলাদেশে কেন এত দুর্ঘটনা ঘটছে? আমেরিকায় কি এমন দুর্ঘটনা ঘটছে? ইংল্যান্ডে কি ঘটছে?

আদালত ক্ষোভ প্রকাশ করে আরও বলেন, বিআরটিএ ছাড়াও দেশে পুলিশ আছে, পুলিশের নাকের ডগার ওপর দিয়ে এসব অনিয়ম হচ্ছে।

অমৃতবাজার/পিকে