ঢাকা, শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৯ | ১২ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

গাঁজা কম দেয়ায় ৯৯৯ নম্বরে অভিযোগ, অতঃপর…


অমৃতবাজার রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৪:৩০ পিএম, ২৯ জানুয়ারি ২০১৯, মঙ্গলবার
গাঁজা কম দেয়ায় ৯৯৯ নম্বরে অভিযোগ, অতঃপর…

১০ হাজার টাকা দিয়ে তিন কেজি মাদকদ্রব্য গাঁজা অর্ডার করেছিলেন এক গাজাঁ ব্যবসায়ী, কিন্তু তাকে দেয়া হয়েছে এক কেজি। এতে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে সুবিচারের আশায় ফোন দিলেন পুলিশের জরুরি সহায়তা নম্বর ‘৯৯৯’-এ। পুলিশ এসে গাঁজাসহ তাকেই গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠিয়েছে এবং পাইকারী ওই গাজা ব্যবসায়ীকে খুঁজছে।

অবাক করার মতো এই ঘটনাটি ঘটেছে কুমিল্লার ব্রাক্ষণপাড়া উপজেলার বাজারে।

ব্রাক্ষণপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজাহান কবির জানান, রবিবার (২৭ জানুয়ারি) ভোর ৬টার দিকে ‘৯৯৯’ থেকে ফোন দিয়ে থানার পুলিশকে জানানো ব্রাক্ষণপাড়া বাজারে একজন গাঁজা ব্যবসায়ী অবস্থান করছে। এরপরেই থানার এসআই জাকির হোসেনের নেতৃত্বে একটি টিম সেখানে পাঠানো হয়।

ওসি বলেন, ‘আমি সবে রাতের ডিউটি শেষ করে থানায় ফিরেছি। ৯৯৯-এর ফোন পেয়ে আবার ব্রাক্ষণপাড়া বাজারে ছুটলাম। সেখানে গিয়ে দেখি, একজন মধ্যবয়স্কা নারী দাঁড়িয়ে আছেন। তার অভিযোগ, তিনি তিন কেজি গাঁজা কেনার জন্য একজন পাইকারী গাঁজা বিক্রেতাকে ১০ হাজার টাকা দিয়েছিলেন। কিন্তু ওই গাঁজা বিক্রেতা তাকে এক কেজি গাঁজা দিয়েছে। তাই তিনি ‘৯৯৯’ নম্বরে ফোন করে অভিযোগ করেছেন।’

জাকির হোসেন বলেন, ‘ওই পাইকারি বিক্রেতাকে তারা পাননি। তবে এক কেজি গাঁজাসহ পাওয়ায় ওই নারীকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। মাদক দ্রব্য আইনে মামলার পর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।’

ওসি আরও বলেন, ‘আমি তার কাছে জানতে চাইলাম, গাঁজা বেচা-বিক্রি করা তো অবৈধ কাজ, আপনি সেটা পুলিশের নম্বরে ফোন করলেন কেন? ওই নারী বলেছেন, তাকে তিন কেজির কথা বলে এক কেজি দেয়ায় রাগ করে ওই পাইকারী বিক্রেতাকে পুলিশে ধরিয়ে দেয়ার জন্য তিনি ওই কাজ করেছেন।’

পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেফতারকৃত নারী নারায়ণগঞ্জের বাসিন্দা। তবে গাঁজা কেনার জন্য এর আগেও তিনি কয়েকবার ব্রাক্ষণপাড়ায় এসেছিলেন বলে জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন।