ঢাকা, শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯ | ৯ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বগুড়া-৪ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী হিরো আলম


অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৬:০৭ পিএম, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার | আপডেট: ০৬:০৭ পিএম, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার
বগুড়া-৪ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী হিরো আলম

বগুড়া-৪ আসনের মনোনয়নপত্র ফিরে পাওয়ার পর স্বতন্ত্র প্রার্থী হিরো আলম বলেছেন, এ বিজয় সকল জনগণের। তিনি বলেন, সত্যের জয় অবশ্যম্ভাবী, সত্যের জয় হয়েছে। সোমবারে বর্তমান সময়ের আলোচিত এমপি প্রার্থী হিরো আলম গণমাধ্যামকে এ সকল কথা বলেন।

এ সময় তিনি বলেন, আমার এ মনোনয়ন ফিরে পাওয়ায় সকল মিডিয়া কর্মীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমার পাশে যারা সবসময় থেকেছেন, আমাকে যারা সহযোগিতা করেছেন তাদের সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ।

তিনি আরো বলেন, যারা আমাকে পাগল বলে আসলে তারাই পাগল। আমি তাদেরকে বলতে চাই আপনারা যারা আমাকে নিয়ে সমালোচনা করেন তাদের পরাজয় হয়েছে। কবে থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করবেন এমন প্রশ্নের জবাবে হিরো তিনি বলেন, আমি তো এখন ঢাকা আছি, এলাকায় যাই, এরপর নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করব।

হিরো আলম বলেন, ‘আমি এখন খুব খুশি। হাইকোর্টে যে ন্যায় বিচার পাওয়া যায়, তা প্রমাণ হল। ইসি যে বলছিল আমার ভোটার তালিকা ভুয়া, তা আজ মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে। ইসিকে হাইকোর্ট দেখিয়ে দিলাম।’ এদিন দুপুরে বগুড়া-৪ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে হিরো আলমের মনোনয়নপত্র জমা নেয়ার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। হিরো আলমের এক রিটের শুনানি নিয়ে সোমবার হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ নির্বাচন কমিশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের এ নির্দেশ দেন।

এর আগে গত ৬ ডিসেম্বর প্রার্থিতা বাতিলের বিরুদ্ধে হিরো আলমের আপিল নামঞ্জুর করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। নির্বাচন ভবনে ৪৩ নম্বর সিরিয়ালে হিরো আলমের প্রার্থিতা ফিরে পাওয়ার আবেদনের শুনানি হয়। এ সময় তিনি সেখানে উপস্থিত ছিলেন। নিজের প্রার্থিতা পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন। শুনানি শেষে নির্বাচন কমিশন তার মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করেন।

এরপর এক তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় হিরো আলম ক্ষোভ প্রকাশ করেন। ইসির সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করবেন বলে জানান হিরো আলম। তিনি বলেন, হিরোকে জিরো বানানো এত সহজ নয়, এত সহজে মাঠ ছেড়ে যাচ্ছি না। উচ্চ আদালতে আপিল করব।আমি এখনই উচ্চ আদালতে যাচ্ছি। ৬ ডিসেম্বরই হাইকোর্টে রিট করেন হিরো আলম।আজ সেই রিটের আদেশে তার মনোনয়ন গ্রহণের নির্দেশ দেন আদালত।

জাতীয় পার্টি থেকে নির্বাচন করতে চেয়েছিলেন হিরো আলম। মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনে মনোনয়নপত্র জমা দেন। গত রোববার মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা হিরো আলমের মনোনয়নপত্র বাতিলের ঘোষণা দেন। হিরো আলম সোমবার নির্বাচন কমিশনে প্রার্থিতা ফিরে পেতে আপিল করেন।

আপিলের রায়ে হিরো আলমের প্রার্থিতা বাতিল হয়ে যায়। মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় কষ্ট পেয়েছিলেন হিরো আলম। তার সেই কষ্ট আরও বাড়ল আপিলের রায়ে। আপিল শেষে তিনি গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, ষড়যন্ত্র করে আমার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। মনোনয়নপত্র বাতিলের পেছনে কোনো কারণ নেই।

ইউটিউবে বিচিত্র অভিনয়, গান আর নাচ দেখিয়ে দেশব্যাপী আলোচনায় আসেন হিরো আলম। তার প্রকৃত নাম আশরাফুল আলম।

অমৃতবাজার/ইকরামুল