ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯ | ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

স্বর্ণের দোকান থেকে ১০৯ ভরি স্বর্ণ, ১৮ লাখ টাকা লুট


অমৃতবাজার রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১১:০৬ এএম, ০৭ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
স্বর্ণের দোকান থেকে ১০৯ ভরি স্বর্ণ, ১৮ লাখ টাকা লুট

নরসিংদীর ঘোড়াশালে গোয়েন্দা পুলিশ পরিচয়ে ৫টি স্বর্ণের দোকান ও ১টি চালের দোকানে দুর্ধর্ষ ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে জেলার পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল স্বর্ণ পট্টিতে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

ডাকাত দল ১০৯ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, ৫০০ ভরি রুপার অলঙ্কার ও নগদ ১৮ লাখ টাকা লুট করে নেয় বলে দাবি করেছেন ব্যবসায়ীরা। এ সময় ডাকাতদের এলোপাতাড়ি পিটুনিতে দুইজন আহত হয়েছে।


পলাশ থানা পুলিশ জানায়, সোমবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে শীতলক্ষ্যা নদী দিয়ে ৩টি স্পিড বোটযোগে ২০ থেকে ২৫ জনের একটি ডাকাত দল ঘোড়াশালের স্বর্ণ পট্টিতে হামলা দেয়। ওই সময় বাজারের নিরাপত্তা রক্ষীদের কাছে তারা নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দেয়। এক পর্যায়ে নিরাপত্তারক্ষীদের একসঙ্গে করে বেঁধে ফেলে।

পরে তারা প্রিয় জুয়েলার্স, মা জুয়েলার্সসহ পরপর ৫টি স্বর্ণের দোকানের তালা ভেঙে ভেতরে থাকা ১০৯ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, ৫০০ ভরি রৌপ্যালঙ্কার ও নগদ ১৮ লাখ টাকা লুট করে নেয়।

প্রিয় জুয়েলার্সের মালিক ইন্দ্রজিৎ বর্মণ বলেন, ভোর ৪টার দিকে খবর পাই বাজারে ডাকাতি হয়েছে। বাজারে এসে দেখি রাতে দোকানে থাকা কয়েকজন কর্মচারী ও নিরাপত্তা প্রহরীদের বেঁধে একটি রুমে আটকিয়ে রাখা হয়েছে।

পরে দোকানে গিয়ে দেখি দোকানে থাকা স্বর্ণ, রুপাসহ নগদ অর্থ ডাকাতরা লুট করে নিয়ে গেছে। নরসিংদী পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ার্দার বলেন, এরা সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্র।

অমৃতবাজার/ কেএসএস