ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯ | ৩০ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

৮৬ বছরের বৃদ্ধাকে জমির জন্য পেটালো ছেলে ও নাতি


অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৪:১০ পিএম, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, রোববার | আপডেট: ১১:৪৬ পিএম, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, রোববার
৮৬ বছরের বৃদ্ধাকে জমির জন্য পেটালো ছেলে ও নাতি

গাজীপুরের কালীগঞ্জে জমির জন্য ৮৬ বছরের বৃদ্ধাকে মারধর করে গুরুতর আহত করেছেন তার নাতি আনিছুর রহমান কাকন। শুধু নাতিই নয়, ওই বৃদ্ধার বড় ছেলে আলকাছ মিয়াও জমির কারণে তাকে প্রায়ই মারধর করেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার উপজেলার নাগরী ইউনিয়নের টাহরদিয়া গ্রামের মৃত বিল্লাল আলীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। কাকন ওই বৃদ্ধার বড় ছেলে আলকাছ মিয়ার ছেলে।

এ ব্যাপারে শনিবার দুপুরে বৃদ্ধার ছোট মেয়ে রাজিয়া বেগমের ছেলে আ. সালাম মোল্লা বাদী হয়ে তিনজনের নামে কালীগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনর্চাজ আবু বকর মিয়া জানান, অভিযোগ পেয়েছি। দ্রুত তাকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

এ ব্যাপারে বৃদ্ধা হালিমা খাতুন জানান, প্রায় ৫২-৫৩ বছর আগে আমার স্বামী মারা যান। তার মৃত্যুর পর থেকেই আমার ছেলে আলকাছ মিয়া জমি সংক্রান্ত বিরোধে আমাকে প্রায় সময়ই মারধর করত। পরে আমি মেয়ের বাড়ি গাজীপুর সিটির মারুকা চলে যাই।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে ওই বৃদ্ধা বলেন, মাঝে মধ্যে বাড়িতে আসলে তারা আমাকে খেতে দেয় না, বাথরুমে যেতে দেয় না। অনেক কষ্ট করে রান্না করে খাই। শুক্রবার বৃষ্টির সময় আমি রান্না করছিলাম। পরে আমার নাতি কাকন আমারে গলায় টিপে ধরে আমাকে মারতে থাকে।

তাতে করে আমার কপালে, পিঠে, হাতে পায়ে প্রচণ্ড আঘাত পাই এবং ভয়ে আমি আমার জামা-কাপড় নষ্ট করে ফেলি। এর কিছুক্ষণ পর সে ঘরে তালা মেরে আমাকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়।

এ ব্যাপারে ইউপি মেম্বার এন্তাজ উদ্দিন বলেন, মসজিদে এসে ওই বৃদ্ধা মুসল্লিদের নিকট বিচার চেয়েছেন। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক।

অমৃতবাজার/ কেএসএস