ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৭ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ফরিদপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ১১ জন নিহত


অমৃতবাজার রিপোর্ট 

প্রকাশিত: ০৬:৫৬ পিএম, ২৪ আগস্ট ২০১৯, শনিবার
ফরিদপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ১১ জন নিহত

 

ফরিদপুরে পৃথক দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় ১১ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে কমপক্ষে আরো ২২ জন। আহতদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে।

প্রথম দুর্ঘটনাটি ঘটে বেলা সোয়া দুইটার দিকে ফরিদপুরের ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের ধুলদি নামক স্থানে। ঢাকা থেকে কমফোর্ট লাইনের যাত্রীবাহী একটি বাস গোপালগঞ্জ যাচ্ছিল। পথিমধ্যে ধুলদি ব্রীজের কাছে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মোটর সাইকেলকে চাপা দিলে বাসটি নিয়ন্ত্রন হারায়।

এসময় পাশের এক ব্রীজের রেলিং ভেঙ্গে নিচে পড়ে যায়। এতে বাসটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই বাসের ৫ যাত্রী নিহত হয়। দুর্ঘটনা পর স্থানীয় এলাকাবাসীর সহায়তায় ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ উদ্ধার অভিযান চালায়। আহতদের উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে মারা যায় আরো ৩ জন।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে সেখানে ছুটে যান জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারসহ প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা। বর্তমানে উদ্ধার কাজ চলছে। হাসপাতালে ভর্তি আহত কয়েকজনের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। এখন পর্যন্ত নিহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এদিকে, অপর দূর্ঘটনায় বেলা সাড়ে তিনটার দিকে ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার তালমা মোড়ে লোকাল বাসের চাপায় মারা যায় তিনজন। ভাঙ্গা থেকে ছেড়ে আসা আরকে পরিবহনের একটি লোকাল বাস ঘটনাস্থলে  একটি অটোরিকশা ও কয়েকজন পথচারীকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে মারা যায় অটো রিকশার যাত্রী রেশমা বেগম ও তার ছেলে রাজু। হাসপাতালে নেবার পথে মারা যায় আবুল সিকদার নামের এক পথচারী।

অমৃতবাজার/এএস