ঢাকা, মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯ | ২৮ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মাদারীপুরে ডেঙ্গুতে আক্রন্ত হয়ে আরো একজনের মৃত্যু


মাদারীপুর প্রতিনিধি,

প্রকাশিত: ১০:৪৬ পিএম, ০৫ আগস্ট ২০১৯, সোমবার | আপডেট: ১০:৪৮ পিএম, ০৫ আগস্ট ২০১৯, সোমবার
মাদারীপুরে ডেঙ্গুতে আক্রন্ত হয়ে আরো একজনের মৃত্যু

 

মাদারীপুরে ডেঙ্গুতে আক্রন্ত হয়ে আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে গত ৬ দিনে জেলায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৫ জনে। রোববার গভীর রাতে রিপন হাওলাদার (৩০) শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে মারা গেছেন। রিপন শিবচর উপজেলার সন্নাসীরচর ইউনিয়নের রাজারচর গ্রামের হাবিবুর রহমান হাওলাদারের ছেলে। সে ঢাকার একটি গার্মেন্টেস ফ্যাক্টরিতে কাজ করতো বলে জানা গেছে।

হাসপাতাল ও স্থ্যানীয় সূত্রে জানা গেছ, গত ৬ দিনে জেলায় আরো ৪ জন রোগী মারা যান। তাদের মধ্যে শুক্রবার মধ্যরাতে নাদিরা বেগম (৪০) নামের এক গৃহবধূ কালকিনি হাসপাতালে মারা গেছেন। নাদিরা কালকিনি পৌর এলাকার উত্তর কৃষ্ণনগর গ্রামের আলমগীর মোড়লের স্ত্রী।

আগের দিন বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে শারমিন আক্তার (২২) নামের এক তরুনী ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান। শারমিন রাজৈর উপজেলার টেকেরহাটের রুবেল মিয়ার মেয়ে। অন্যদিকে বুধবার সন্ধায় ফারুক খান (২২) নামের এক যুবক ঢাকার ইসলামি ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতালে মারা যান। ফারুক শিবচর উপজেলার পুরাতন ফেরিঘাট এলাকার সলুবেপারীকান্দি গ্রামের বাবু খানের ছেলে। মঙ্গলবার ঢাকায় মারা গেছেন জুলহাস বেপারী (৪৫) নামের এক ব্যক্তি।

তিনি কালকিনি উপজেলার পৌরসভার ঠেঙ্গামারা গ্রামের বারেক বেপারীর ছেলে। এ নিয়ে গত ৬ মাদারীপুর জেলার ৫ জন দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। গত ২৪ ঘন্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে আরো ২০জন। সোমবার বেলা ২টা পর্যন্ত জেলায় ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে ৮০জন। বর্তমানে সদর হাসপাতালসহ উপজেলা হাসপাতালগুলোতে ২৫ ডেঙ্গু রোগী ভর্তি আছেন।

মাদারীপুর সিভিল সার্জন ডা. শফিকুল ইসলাম বলেন, মাদারীপুরে ডেঙ্গু আক্রান্ত বেশির ভাগ রোগী ঢাকা বা অন্য জায়গা থেকে ডেঙ্গুর জীবাণু বহন করে এনেছে। ২০ জন জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে আক্রান্ত হয়েছেন। জেলায় মোট আক্রন্ত রোগীর সংখ্যা ৮০ জন। ডেঙ্গু প্রতিরোধের জন্য আমরা বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠনের ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভবকদের সচেতনাতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি।

অমৃতবাজার/স্বপন/এএস