ঢাকা, রোববার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সিরাজগঞ্জে ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে যুবককে গণপিটুনি


অমৃতবাজার রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৪:০২ পিএম, ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার
সিরাজগঞ্জে ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে যুবককে গণপিটুনি

 

সিরাজগঞ্জ শহরের পাইকপাড়ায় ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে আলম হোসেন (৩৫) নামে এক যুবককে গণপিটুনি দিয়ে থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। আটক আলম হোসেন গয়লা বটতলা এলাকায় আব্দুর রহিমের ছেলে। তাকে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলুতুন্নেছা মুজিব হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মঙ্গলবার সকালে পাইকপাড়া দারুল কোরআন কওমী মাদ্রাসায় আলম নামে ওই যুবক মাদ্রাসার জানালা দিয়ে ঢোকার চেষ্টা করছিল। এসময় শিক্ষার্থীরা তাকে দেখে ভয়ে চিৎকার করতে থাকে। চিৎকারে গ্রামবাসী ও সব মাদ্রাসার ছাত্ররা তাকে আটক করে গণপিটুনি দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ আহত অবস্থায় আলমকে উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই মাদ্রাসার অধ্যক্ষ হাফিজুর রহমান, পাইকপাড়া গ্রামের মো. আয়নাল, মোকলেছুর রহমান ও আব্দুল আওয়াল নামে চারজনকে আটক করেছে।

সদর থানার এসআই মাহমুদ জুয়েল জানান, ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে গণপিটুনিতে আহত আলম আসলে একজন ছিঁচকে চোর ও মাদকাসক্ত।

অমৃতবাজার/এএস