ঢাকা, রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯ | ১০ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পাবনায় পৃথক ঘটনায় দুই স্কুলছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগ, আটক-১


পাবনা প্রতিনিধি,

প্রকাশিত: ১১:১৩ পিএম, ২৫ মে ২০১৯, শনিবার
পাবনায় পৃথক ঘটনায় দুই স্কুলছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগ, আটক-১

 

পাবনার ভাঙ্গুড়া ও ঈশ্বরদীতে পৃথক ঘটনায় দুই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এদের মধ্যে একজন অন্ত:স্বত্ত্বা হয়ে পড়েছে। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে মজনু সরকার (৪০) নামের এক অভিযুক্তকে আটক করেছে পুলিশ।

ভাঙ্গুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ রানা জানান, ভাঙ্গুড়া উপজেলার রাঙ্গালিয়া গ্রামের মজনু সরকার গত পাঁচ মাস আগে তার বাড়ির পাশের এক কিশোরী স্কুলছাত্রী (১৩) কে বাড়িতে একা পেয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে এবং এ ঘটনা কারও কাছে প্রকাশ করলে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

এতে অন্ত:স্বত্ত্বা হয়ে পড়লে স্কুলছাত্রী বিষয়টি তার বাবা-মা ও মজনুকে জানায়। তখন অভিযুক্ত মজনু গর্ভপাত করাতে ওই ছাত্রীকে গোপনে কিছু ঔষধ সেবন করায়। ঔষধ খেয়ে সে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে গেলো রাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

পরে এ ঘটনায় মজনু সরকারকে অভিযুক্ত করে শুক্রবার রাতে থানায় মামলা করেন স্কুলছাত্রীর বাবা। পরে রাতেই তাকে আটক করে পুলিশ।

অপরদিকে, ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দিন ফারুকী জানান, উপজেলার অরনকোলা পশ্চিমপাড়া গ্রামে গত ২২ মে দুপুরে এক কিশোরী (১৫) কে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

একই গ্রামের মৃত বেলাল হোসেনের ছেলে আতিকুল ইসলাম (২০) নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে এই ধর্ষণের অভিযোগে শুক্রবার রাতে মামলা হয়েছে।

শনিবার (২৫ মে) দুপুরে উভয় ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষা পাবনা জেনারেল হাসপাতালে সম্পন্ন হয়েছে। গাইনী চিকিৎসক ডা. নার্গিস সুলতানা তাদের পরীক্ষা করেন। প্রাথমিক পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত মিলেছে বলে জানা গেছে।

অমৃতবাজার/শাহীন/এএস