ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৩ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ইটে মাথা থেঁতলে মাকে হত্যা করল ছেলে


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৮:৫৫ পিএম, ২২ মে ২০১৯, বুধবার
ইটে মাথা থেঁতলে মাকে হত্যা করল ছেলে

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে পারিবারিক কলহের জেরে ছেলের হাতে মা খুন হয়েছেন। এ ঘটনার পর স্থানীয়রা পাষণ্ড ছেলেকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। বুধবার সকালে উপজেলার মরকাবহ চরপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম ভুলি বেগম (৫০)। তিনি কালিয়াকৈর উপজেলার ঢালজোড়া ইউনিয়নের মরকাবহ চরপাড়া এলাকার আবুল হোসেনের স্ত্রী।

কালিয়াকৈর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাকিম মিয়া স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, স্বামী এবং দুই ছেলে ও দুই মেয়েকে নিয়ে ভুলি বেগমের সংসার। কয়েক বছর আগে পারিবারিকভাবে ভুলি বেগম তার ভাইয়ের মেয়ের সঙ্গে নিজের বড় ছেলে আলতাফ হোসেনের বিয়ে দেন।

বিয়ের কিছুদিন পরেই পারিবারিক কলহের জেরে আলতাফ তার স্ত্রীকে নিয়ে আলাদাভাবে সংসার শুরু করে। কিন্তু আলাদা সংসার করলেও তাদের পারিবারিক কলহ মেটেনি। বড় ছেলে আলতাফ প্রায় তার মা-বাবা ও ভাই-বোনের সঙ্গে ঝগড়া করতেন।

ভুলি বেগম প্রতিদিনের মতো বুধবার সকালে ঘুম থেকে ওঠে বাড়ির বিভিন্ন কাজকর্ম করেন। পরে তিনি ঘরের বারান্দায় বসে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। এসময় তার বড় ছেলে আলতাফ হোসেন ঘুম থেকে ওঠে পারিবারিক কলহের জেরে মায়ের সঙ্গে কথাকাটাকাটি ও ঝগড়ায় লিপ্ত হয়।

একপর্যায়ে ছেলে আলতাফ তার মা ভুলি বেগমের মাথায় ইট দিয়ে আঘাত করেন। এতে তার মাথা ফেটে যায় এবং তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।

পরে এলাকাবাসী রক্তাক্ত অবস্থায় ভুলি বেগমকে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

স্থানীয়রা পাষণ্ড ছেলে আলতাফ হোসেনকে (৩০) আটক করে পুলিশে খবর দেয়।

কালিয়াকৈর থানা পুলিশ দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের লাশ গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান ওসি।

অমৃতবাজার/অনি