ঢাকা, শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৯ | ১৩ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

জয়পুরহাটে স্কুলছাত্র হত্যাকারীর শাস্তি দাবি


জয়পুরহাট সংবাদদাতা

প্রকাশিত: ১১:১৩ পিএম, ২৫ মার্চ ২০১৯, সোমবার | আপডেট: ১১:১৮ পিএম, ২৫ মার্চ ২০১৯, সোমবার
জয়পুরহাটে স্কুলছাত্র হত্যাকারীর শাস্তি দাবি

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলায় ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র আব্দুর রহমাকে গলা কেটে হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধনে হত্যাকাণ্ডে জড়িত খুনিদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে ফাঁসির দাবি জানানো হয়।

সোমবার সকাল ১১টায় ‘সচেতন শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দ’ ব্যানারে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের প্রায় দুই শতাধিক শিক্ষক-শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা অভিযোগ করেন, হত্যার প্রায় ১০দিন পেরিয়ে গেলেও এখনো কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। অবিলম্বে দোষীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তারা।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, নিহত আব্দুর রহমানের মেজো ভাই জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি’র (আইআইটি) ৪১তম আবর্তনের শিক্ষার্থী আব্দুল মুমিন।

তিনি জানান, ‘তাকে এভাবে হত্যা করার কোনো কারণ আমরা খুঁজে পাচ্ছি না। যে জায়গায় আমার ছোট ভাইকে হত্যা করেছে সেখানে অনেক অনৈতিক কাজ হয়, নিশ্চয় আমার ছোট ভাই খুনিদের কোনো অপরাধ দেখে ফেলার কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে।’

ছোট ভাইয়ের হত্যাকারীদের দ্রুত শাস্তির দাবি জানিয়ে আব্দুল মুমিন বলেন, ‘কোনো কারণ ছাড়াই আমার ছোট ভাইকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে, আমার পরিবারের সাথে কারও কোনো দ্বন্দ্ব নেই। আমি সরকার ও প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে আমার নিষ্পাপ ছোট ভাইটিকে হত্যাকারীদের দ্রুত বিচার ও শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।’

মানববন্ধনে ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি’র(আইআইটি) সহযোগী ফজলুল করিম পাটোয়ারী বলেন, আজকের শিশু আগামীর ভবিষ্যত, যে শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে সে হয়তো জাতির কর্ণধার হতে পারতো। শিশু হত্যা জঘন্য অপরাধ, খুনিদের আটক করে বিচার আওতাধীন আনার জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।’

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট জাবি শাখার সভাপতি সুস্মিতা মরিয়ম বলেন, ‘আমরা এমন একটি সমাজে বাস করি যেখানে নারী ও শিশুদের কোন অধিকার নেই। এসব ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটছে, তাই আমি প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি যে, প্রশাসন যেনো খুনিদের গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় নিয়ে আসে।’

গত ১৫ মার্চ শুক্রবার রাত ১০টার দিকে হরেন্দা বাজারের একটি পরিত্যাক্ত স্কুল ভবন থেকে শিশু আব্দুর রহমানের গলাকাটা লাশ দেখতে পান স্বজনরা। পরে ঘটনাটি পুলিশকে জানালে পরিত্যক্ত ভবন থেকে স্কুলছাত্রের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পাঁচবিবি থানা পুলিশ।

নিহত আব্দুর রহমান ধুরইল গ্রামের বাসিন্দা রেজাউল করিমের ছেলে ও ধুরইল উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র। এ ঘটনায় তার বাবা বাদী হয়ে পাঁচবিবি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

অমৃতবাজার/আরএন/এএস/আরবি