ঢাকা, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯ | ৮ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বঙ্গোপসাগরে পূর্বের নিয়মে মাছ আহরণ চালু রাখার দাবি


চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১০:৪৩ পিএম, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, সোমবার | আপডেট: ১০:৪৫ পিএম, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, সোমবার
বঙ্গোপসাগরে পূর্বের নিয়মে মাছ আহরণ চালু রাখার দাবি

নতুন নিয়মে বঙ্গোপসাগরে ২০ মে থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত মাছ ধরা বন্ধ না করার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছে বোট মালিকরা। সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) নগরের নতুন ফিশারিঘাটে সামুদ্রিক মৎস্য আহরণকারী বোট মালিক সমিতির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল হক বাবুল সরকার বলেন, জাটকার জন্য ৬ মাস, প্রজননকালীন বন্ধ ২২ দিন, সাগরের বৈরী আবহাওয়ার জন্য ৩ মাস মৎস্য আহরণ সম্পূর্ণ বন্ধ থাকে। কিন্তু ২০ মে থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত সরকার নতুন করে যান্ত্রিক নেীযানে মৎস্য আহরণ বন্ধ রাখার চিন্তাভাবনা করছে। যদি ইলিশের ভরা মৌসুমে মাছ আহরণ বন্ধ রাখা হয়, তাহলে মৎস্যজীবীরা ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হবে। তাই পুরানো নিয়মে বঙ্গোপসাগর থেকে মাছ আহরণ চালু রাখা হোক।

তিনি আরো বলেন, সমুদ্রে ইলিশ মাছ ধরার জন্য যে ভাসান জাল আছে তাতে নির্দিষ্ট সাইজ ব্যতীত ইলিশ ধরা পড়ে না। সরকারি হিসাবে ভাসান জালে ১০ থেকে ১২ হাজার মৎস্যজীবী রয়েছে বলা হলেও এর প্রকৃত সংখ্যা ৬০ হাজারের উপরে। তাই তাদেরকেও সরকারি হিসাবের আওতায় আনা হলে সরকার ও ভাসান জাল ব্যবহারকারী উভয়েই উপকৃত হবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ আলী সওদাগর, সহ-সভাপতি নুর হোসেন সওদাগরসহ সমিতির পরিচালকরা।

অমৃতবাজার/দিদারুল/রেজওয়ান