ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

রাজশাহী নগরীর ২৫ বাড়িতে ঢুকেছে পদ্মার পানি


রাজশাহী প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ০৭:৪০ পিএম, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বুধবার
রাজশাহী নগরীর ২৫ বাড়িতে ঢুকেছে পদ্মার পানি

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে রাজশাহীতে পদ্মা নদীতে পানি বেড়েছে। পানি বৃদ্ধির ফলে নগরীর ২৪ নম্বর ওয়ার্ডে খড়বোনা পদ্মা পাড়ের প্রায় ২৫টি বসতবাড়িতে পানি ঢুকে গেছে। এর ফলে আশেপাশের বেশকিছু পরিবারও তাদের ঘর-বাড়ি সরিয়ে নিতে শুরু করেছে। আর যারা রয়েছে তাদের আতঙ্কের মধ্যে দিন পার হচ্ছে।

রাজশাহী পাউবোর গেজ রিডার এনামুল হক জানান, প্রতিদিনই পদ্মার পানি বাড়ছে। রাজশাহী নগরীর বড়কুঠি পয়েন্টে পদ্মার পানির উচ্চতা ছিল গত ২৪ ঘণ্টায় পদ্মা রাজশাহী সীমান্তে ২ সেন্টিমিটার পানি বেড়েছে। গত মঙ্গলবার ১৭ দশমিক ১৬ মিটার। গত সোমবার ১৭ দশমিক ১৪, রোববার ১৭ দশমিক ১০ এবং শনিবার ছিলো ১৭ দশমিক ৪ সেন্টিমিটার।

পানি বৃদ্ধির ফলে আতঙ্কে রয়েছে এই এলাকার বাসিন্দারা। পদ্মার পানি বাড়া অব্যাহত থাকলে অনেক ঘর-বাড়ি তলিয়ে যাবে। স্থানীয়রা আশঙ্কা করছেন কোনো ব্যবস্থা না নিলে তারা সহায় সম্বলহীন হবে। স্থানীয়রা জানায়, ১২ থেকে ১৫ দিন আগে এই এলাকায় কিছু বাড়ির মধ্যে পানি প্রবেশ করেছে। ইতোমধ্যেই পর্যায়ক্রমে ২৫ থেকে ৩০টা বাড়ি সরিয়ে নেয়া হয়েছে। পানি বাড়ার কারণে আবার কেউ বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র ভাড়ায় চলে গেছেন।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, খরবোনা পদ্মা পাড় এলাকার অনেক বাড়ি পদ্মা নদীর পানি ঢুকে গেছে। কোনো কোনো বাড়িতে রান্না হচ্ছে ঘরে। আবার কোনো বাড়ির মাটি পানি স্রোতে ভেঙে নিয়ে গেছে। সেই বাড়িগুলো বাঁশের খুঁটির উপরে দাঁড়িয়ে রয়েছে। যাদের ভাড়া যাওয়ার সামর্থ নেই তারা সেখানেই মাঁচা করে পানি উপরে বাস করছেন ঝুঁকি নিয়ে।

এলাকার নয়ন প্রামানিক জানায়, ২৫ থেকে ৩০টা বাড়ি সরিয়ে নিয়েছে স্থানীয়রা। তারা বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকছে। এছাড়া হাবিব, হযরত, আবদুল সাইদুর, লিটনসহ অনেকের বাড়িতে পানি উঠেছে। সাইদুর ও লিটনের বাড়ি পানিতে তলিয়ে গেছে। তারা অন্যত্র চলে গেছে তিনি জানান।

২৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরমান আলী দাবি করেন, প্রায় ৫ শতাধিক বসতবাড়িতে পানিতে ঢুকেছে। এর মধ্যে শতাধিক বাড়ি পদ্মায় বিলীন হয়ে গেছে। এই বিষয়ে সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশাকে জানানো হয়েছে।

রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেসুর রহমান বলেন, পদ্মার পানি বাড়ছে। আর ওই সমস্ত বাড়িগুলো প্রায় নদীর ভেতরে। তাই পানি উঠবে এটাই স্বাভাবিক। এছাড়া কয়েক দিনের মধ্যে পানি নামতে শুরু করবে।

অমৃতবাজার/শিহাবুল/সুজন