ঢাকা, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ৪ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

লালমনিরহাটে অনির্দিষ্টকালের জন্য ১৯ বিদ্যালয় বন্ধ


লালমনিরহাট প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ০৫:৫৬ পিএম, ১৭ জুলাই ২০১৭, সোমবার
লালমনিরহাটে অনির্দিষ্টকালের জন্য ১৯ বিদ্যালয় বন্ধ

বন্যার কারণে লালমনিরহাট জেলার  তিন উপজেলার ১৯টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাঠদান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ওই সব বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ রয়েছে।

লালমনিরহাট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, লালমনিরহাট সদর উপজেলায় ৪টি, আদিতমারী উপজেলায় ৪টি ও হাতীবান্ধা উপজেলায় ১১টি প্রাথমিক বিদ্যালয় সাম্প্রতিক বন্যায় কবলে পড়েছে। ফলে এসব বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ ঘোষণা করা হয়।



পাঠদান বন্ধ থাকা বিদ্যালয়গুলো হলো, হাতীবান্ধা উপজেলার কিসামত নোহালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ডাউয়াবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পশ্চিম হলদিবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পূর্ব হলদিবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পার শেখ মধ্যপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সিন্দুর্ণা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চর গড্ডিমারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, উত্তর হলদিবাড়ী শিশুকল্যাণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, লালমনিরহাট সদর উপজেলার কালমাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, তাজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চরবুদারু কাশিয়াবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মধুরাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও আদিতমারী উপজেলার গোবর্দ্ধন ইসমাইলপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গোবর্দ্ধন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাহাদুরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও গোবর্দ্ধন চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।



ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোস্তাফিজুর রহমান জানান, তিস্তা নদীর পানি কমতে শুরু করেছে। বর্তমান তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এ বিষয়ে লালমনিরহাট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নবেজ উদ্দিন সরকার ঘটনার সত্যতা নিছিত করে জানান, গত কয়েক দিনের ভারি বর্ষণ ও উজানের পাহাড়ি ঢলে তিস্তায় ভয়াবহ বন্যা দেখা দেয়। এতে দুটি প্রাথমিক বিদ্যালয় নদীতে বিলীন হয়ে যায়। এ ছাড়া ১৭টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বন্যার পানি ঢুকে পড়েছে। তই ওইসব বিদ্যালয়ে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত পাঠদান কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে।

অমৃতবাজার/হাসান/রেজওয়ান

Loading...