ঢাকা, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ | ৪ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ফেসবুকে ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটুক্তি, যুবক আটক


রাঙামাটি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১২:০৬ এএম, ১১ মে ২০১৭, বৃহস্পতিবার
ফেসবুকে ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটুক্তি, যুবক আটক

রাঙামাটির লংগদুতে ফেসবুকে ইসলাম ধর্ম নিয়ে অশালীন স্টাটাসের দ্বায়ে এক যুবককে আটক করেছে লংগদু থানা পুলিশ। বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার মাইনীমূখ বাজার থেকে সুজন দে (২৫) নামের এ যুবককে আটক করা হয়। আটক যুবক মাইনীমূখ বাজারে একটি লন্ড্রি দোকানের কর্মচারী। সে উপজেলার জালিয়া পাড়া গ্রামের দিলীপ দে‘র ছেলে।

লংগদু থানা সূত্র জানায়, মাইনীমূখ বাজারের কয়েকজন তরুণ ব্যবসায়ীদের ফেসবুক ওয়ালে একটি ফেক আইডি (জানা ও অজানা) থেকে  ইসলাম ধর্ম, আল্লাহ ও রাসুলকে নিয়ে অশালীন কটুক্তিমূলক কয়েকটি স্টাটাস নজরে আসে। তারা আসামী সুজন দে কে আটক করে  পুলিশকে জানালে পুলিশ গিয়ে আসামীকে থানায় নিয়ে আসে।

বাজারের ব্যবসায়ী হানিফ রেজা বলেন, আমরা কয়েকজন বন্ধু এ বিষয়টি প্রথম দেখি এবং আইডি থেকে একটি কন্টাক নাম্বার পাওয়া যায়। যেখানে ফোন করে সুজন দে এ আইডি চালায় সেটা নিশ্চিত হই। এবং তাকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেই।

এ দিকে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মাগরিবের নামাজের পরে মাইনীমূখ বাজারে মিছিল করেছে মুসল্লিরা। তবে লংগদু থানা পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থার তৎপরতার কারণে মিছিল থেকে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

এ বিষয়ে জাতীয় ইমাম সমিতি লংগদু শাখার সভাপতি মাওলানা আমিনুর রশিদ বলেন, ইসলাম কারো ধর্ম নিয়ে কটুক্তি করার পক্ষে নয়। যে এ কাজ করেছে তার উপযুক্ত শাস্তি হোক এটা আমাদের দাবি।

লংগদু শ্রী শ্রী রাধা কৃষ্ণ সেবাশ্রমের অধ্যক্ষ নিহার চক্রবর্তী বলেন, ধর্মের জ্ঞান যাদের মধ্যে নাই, তারাই এমন অপকর্ম করতে পারে। অপরাধী যে হোক তার উপযুক্ত শাস্তি হওয়া দরকার।
 
লংগদু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মমিনুল ইসলাম বলেন, আসামীর বিরুদ্ধে সাইবার অপরাধে মামলার প্রস্তুতি চলছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ম নিয়ে ফেসবুকে অশালীন স্টাটাসের কথা সে স্বীকার করেছে। বৃহস্পতিবার সকালে আসামীকে আদালতে প্রেরণ করা হবে। আদালতে আসামীর দশ দিনের রিমান্ডের জন্য আবেদন করা হবে।

অমৃতবাজার/রেজওয়ান