ঢাকা, রোববার, ২৪ মার্চ ২০১৯ | ১০ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

‘সুইডিশ ড্যাডস অ্যান্ড বাংলাদেশি বাবা’ শীর্ষক আলোচনা


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৪:৫৩ পিএম, ১০ মার্চ ২০১৯, রোববার | আপডেট: ০৪:৫৫ পিএম, ১০ মার্চ ২০১৯, রোববার
‘সুইডিশ ড্যাডস অ্যান্ড বাংলাদেশি বাবা’ শীর্ষক আলোচনা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের জয়নুল আর্ট গ্যালারিতে ‘সুইডিশ ড্যাডস অ্যান্ড বাংলাদেশি বাবা’ শীর্ষক আলোকচিত্র প্রদর্শনী ও প্যানেল আলোচনার আয়োজন করেছে ইউএন উইমেন বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের সুইডেন দূতাবাস।

বাংলাদেশি বাবাদের সন্তানের যত্ন নেয়ার মুহূর্ত ও সুইডেনের জনপ্রিয় আলোকচিত্র শিল্পী জোহান বাভম্যানের তোলা ছবিগুলো উক্ত প্রদর্শনীতে প্রদর্শন করা হবে। একটি বিশেষ আয়োজনের মাধ্যমে বাংলাদেশিদের তোলা ছবিগুলো সংগ্রহ এবং নির্বাচন করা হয়েছে। বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইডেনের রাষ্ট্রদূত শার্লটা স্লাইটার এবং ইউএন উইমেন বাংলাদেশের কান্ট্রি রিপ্রেজেনটেটিভ শোকো ইশিকাওয়ার উপস্থিতিতে আয়োজনটির উদ্বোধন করা হয়।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইডেনের রাষ্ট্রদূত শার্লটা স্লাইটার বলেন, ‘সন্তানের প্রতি বাবা-মায়ের ভালোবাসার দিকটি তুলে ধরতেই প্রদর্শনীটি আয়োজন করা হয়েছে। আমার প্রত্যাশা, পুরুষরা বাবা এবং জীবনসঙ্গীর দায়িত্ব সঠিকভাবে অনুধাবন করবে যা লৈঙ্গিক সমতা নিশ্চিত করে সমাজ গঠনের পথে এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবে। গল্পগুলো বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে যাওয়ার বিষয়টি ইতিবাচক, যা লৈঙ্গিক সমতা প্রতিষ্ঠায় সুইডেনের একাগ্রচিত্ততার প্রমাণস্বরূপ।’

শোকো ইশিকাওয়া বলেন, ‘লৈঙ্গিক সমতা নিয়ে আলোচনায় পুরুষদের অন্তর্ভুক্ত করা এবং লৈঙ্গিক বিষয়ে প্রথাগত ধারণা ভাঙার ক্ষেত্রে তাদের সাথে সংলাপের আয়োজন এবং তাদের পরিবর্তনের ধারক হিসেবে নিয়োজিত করাকেই সর্বোত্তম সমাধান বলে মনে করে ইউএন উইমেন। `হিফরশি` উদ্যোগ ও এ রকম প্যানেল আলোচনার মাধ্যমে সামনের দিনগুলোতে পুরুষদের সাথে আমরা এ ধরনের আরও অংশগ্রহণমূলক আলোচনা করতে চাই।’

আলোচনায় অংশ নেন সুইডেন দূতাবাসের কাউন্সিলর/ হেড অব ডেভলপমেন্ট আন্দেস ওরস্ট্রম, স্ট্যান্ডআপ কমেডিয়ান নাভিদ মাহমুদ এবং ইউনিলিভার বাংলাদেশের ক্যাটাগরি হেড অব হেয়ার কেয়ার জাহিন ইসলাম। আলোচনায় বক্তারা পুরুষদের সন্তানের যত্ন নেয়া, পিতৃত্বকালীন ছুটির পাওয়ার ক্ষেত্রে নীতিমালার ভূমিকা এবং কো-প্যারেন্টিং- এর আদর্শ পরিবেশ নিয়ে আলোচনা করেন।

অমৃতবাজার/আরএইচ