ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০ | ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

অনলাইনে বিনামূল্যে প্রস্তুতিমূলক ক্লাস নিচ্ছে ডিপিএস এসটিএস স্কুল


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০১:৪৪ এএম, ১৮ মে ২০২০, সোমবার
অনলাইনে বিনামূল্যে প্রস্তুতিমূলক ক্লাস নিচ্ছে ডিপিএস এসটিএস স্কুল

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) বৈশ্বিক মহামারির কারণে, আইবি ও কেমব্রিজসহ বিশ্বের অনেক বোর্ড তাদের পরীক্ষাগুলো বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং স্কুলগুলোকে শিক্ষার্থীদের গত বছরের ক্লাস পারফরমেন্সের ওপর ভিত্তি করে গ্রেড দেয়ার পরামর্শ দিয়েছে। এরই মধ্যে এ সঙ্কটকালীন সময়ে ডিপিএস এসটিএস স্কুল এর সকল বোর্ড এক্সামিনেশন পরীক্ষার্থীদের জন্য অনলাইন প্রস্তুতিমূলক ক্লাস শুরু করেছে।

গত ১০ মে এ ক্লাসগুলো শুরু হয়েছে যা পুরো গ্রীষ্মজুড়েই চলবে। সম্পূর্ণ কেমব্রিজ কারিকুলামের ওপর ভিত্তি করে পরিচালিত ডিপিএস এসটিএস স্কুল উপমহাদেশের শীর্ষস্থানীয় স্কুলগুলোর মধ্যে অন্যতম যেখান থেকে বিশ্বমানের শিক্ষার্থীরা বেরিয়ে আসছে। মহামারির প্রতিকূল সময়ে অত্যন্ত সফলভাবে অনলাইন স্কুল পরিচালনা করতে সক্ষম হয়েছে ডিপিএস স্কুল। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির অনলাইনে ক্লাসে ৮৫ শতাংশের বেশি শিক্ষার্থীর উপস্থিতি ছিলো।

শিক্ষার্থীদের গত বছরের পারফরম্যান্সের নিরিখে এ বছর অনুমানপূর্বক মূল্যায়নের সিদ্ধান্ত অনেক পরীক্ষার্থীর প্রতিকূলে যেতে পারে। কেননা, অনেক শিক্ষার্থী রয়েছে যাদের ক্লাস পরীক্ষার চেয়ে চূড়ান্ত বা ফাইনাল পরীক্ষায় ভালো করার সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়াও, বিশ্বের উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো সহজে অনুমানপূর্বক এ মূল্যায়ন গ্রেড গ্রহণ করবে কিনা তারও কোন নিশ্চয়তা নেই। এমতাবস্থায়, কেমব্রিজ এক্সামিনেশন বোর্ডগুলো বিকল্প হিসেবে পরীক্ষার্থীদের অক্টোবর-নভেম্বর ২০২০ সেশনে পুনরায় চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ প্রদান করেছে।  

গ্রীষ্মকালীন ছুটির কারণে সকল অনলাইন ক্লাস বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে, পরীক্ষার্থীদের জন্য অনলাইন ক্লাস পরিচালনা করা শুরু করেছে ডিপিএস এসটিএস স্কুল ঢাকা। এ সঙ্কটকালীন সময়ে, অভিভাবকদের আর্থিক অবস্থা ও শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি - এ দু’টি বিষয় বিবেচনা করে ডিপিএস এসটিএস স্কুল এর সকল পরীক্ষার্থীদের জন্য গ্রীষ্মকালীন ছুটির সময় অনলাইন প্রস্তুতিমূলক ক্লাসগুলো সম্পূর্ণ বিনামূল্যে প্রদান করবে। এ পরিস্থিতিতে, স্কুলটি ইতিমধ্যেই অভিভাবকদের আর্থিক অবস্থা বিবেচনায় বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে যার মধ্যে রয়েছে টিউশন ফি পরিশোধে ইএমআই সুবিধা এবং টিউশন ফি না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত।  

দিল্লি পাবলিক স্কুল ঢাকার অধ্যক্ষ মধু ওয়াল বলেন, ‘এ বৈশ্বিক মহামারি ইতিমধ্যেই বিশ্বের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তালিকাভুক্ত ৭২ শতাংশ শিক্ষার্থীর ওপর প্রভাব ফেলেছে। কেমব্রিজ এক্সামিনেশন বোর্ডের পরীক্ষা বাতিল করার সিদ্ধান্ত ও শিক্ষার্থীদের পূর্ববর্তী বছরের ক্লাস পরীক্ষার ওপর ভিত্তি করে মূল্যায়নের বিষয়টি নিয়ে শিক্ষার্থীদের সমস্যায় ফেলতে পারে। এ ধরনের সমস্যা যেনো তৈরি হতে না হয়, তাই আমরা পরীক্ষার্থীদের জন্য অনলাইন ক্লাস পরিচালনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। শিক্ষার্থীরা বিনামূল্যে এ অনলাইন ক্লাস করতে পারবে কেননা, আমরা জানি, মহামারির এ সময় অথনৈতিক স্থবিরতার কারণে অভিভাবকদেরও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে।

বোর্ড প্রস্তুতিমূলক অনলাইন ক্লাসগুলোর জন্য, শিক্ষার্থীদের সহায়তায় ডিপিএস এসটিএস স্কুলের শিক্ষকরা বিস্তৃত পরিসরে পাঠ পরকল্পনা করেছে। কোনো বিষয় নিয়ে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর ব্যক্তিগত জিজ্ঞাসা অনলাইন ক্লাস চলাকালীন সময়েই সমাধান করা হবে। প্রস্তুতিমূলক ক্লাসের মাধ্যমে পরীক্ষার্থীদের অগ্রগতি মূল্যায়নের জন্য ধারাবাহিক মক টেস্টের নকশা করা হয়েছে। এরপর, যাচাই বাচাই শেষে উন্নতির বিষয়ে শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেয়া হবে।