ঢাকা, সোমবার, ০১ জুন ২০২০ | ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

`ধর্ষককে দেখলে চিনতে পারবে সেই শিক্ষার্থী`


অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৩:৫৮ পিএম, ০৭ জানুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার | আপডেট: ০৭:০৭ পিএম, ০৭ জানুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার
`ধর্ষককে দেখলে চিনতে পারবে সেই শিক্ষার্থী` ঢাকা মেডিকেল কলেজ

রাজধানীর কুর্মিটোলায় রাস্তার পাশে ধর্ষণের শিকার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই শিক্ষার্থী ধর্ষককে দেখলে চিনতে পারবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান নাসিমা বেগম। আজ মঙ্গলবার ঢাকা মেডিকেলের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ওই শিক্ষার্থীকে দেখতে যান তিনি।

এসময় নাসিমা বেগম সাংবাদিকদের বলেন, `আমরা ভিকটিমের সাথে কথা বললাম, দেখলাম যে মেয়েটি অত্যন্ত সাহসী, সে সাহসের পরিচয় দিয়েছে।… সে যেহেতু আসামির চেহারার একটি বর্ণনা দিতে পারছে, অবিলম্বে একটি স্কেচ এঁকে আসামি শনাক্ত ও গ্রেপ্তার করার ব্যবস্থা যাতে করা হয় সেটা আমি বলেছি।`

ঢাকা মহানগর পুলিশের গুলশান বিভাগের উপ-কমিশনার সুদীপ কুমার চক্রবর্তীও ওই শিক্ষার্থীকে দেখতে এসে সাংবাদিকদের সঙ্গে তদন্তের অগ্রগতি নিয়ে কথা বলেন।

মেয়েটির দেওয়া বর্ণনা থেকে পুলিশ ধারণা পেয়েছে- ধর্ষণকারী একজনই, তার বয়স ২৫-৩০ বছরের মত। মেয়েটির বাবা ক্যান্টনমেন্ট থানায় যে মামলা করেছেন, সেখানেও একজনকেই আসামি করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, রবিবার সন্ধ্যায় বান্ধবীর বাসায় যাওয়ার জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে শেওড়ায় উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছিলেন ওই তরুণী। কুর্মিটোলায় বাস থেকে নামার পরপরই মুখ চেপে ধরে তাকে তুলে সড়কের পাশে নিয়ে তিন ঘণ্টা ধরে ধর্ষণ করা হয়। ওইদিনই গভীর রাতে তাকে ঢামেকের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়।

অমৃতবাজার/এসএস