ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৩ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ঈদের ছুটি মানেই যেন হলে চুরি


নোবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ

প্রকাশিত: ১০:০৫ পিএম, ০৯ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার
ঈদের ছুটি মানেই যেন হলে চুরি

 

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) ঈদের ছুটি শুরু হতে না হতেই ভাষা শহীদ আব্দুর সালাম হলের এলইডি টেলিভিশন চুরি হয়েছে। শুক্রবার (৯ আগস্ট) ভোর চারটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আব্দুস সালাম হলে চুরির ঘটনা ঘটে।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড.নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের আনসার টিমের পক্ষ থেকে রাত ৪ টায় ভাষা শহীদ আব্দুস সালাম হল থেকে এলইডি টিভি চুরি হয়েছে এই বিষয়ে আমাকে অবগত করা হয়।

এটা শুনার পরপরেই আমি ভাষা শহীদ আব্দুস সালাম হলের প্রভোস্ট ড.গাজী মো.মহসীনকে এই বিষয়ে অবহিত করি, সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল টিম হলে গিয়ে ঘটনার সত্যতা যাছাই করে এবং আর কিছু চুরি হয়েছে কিনা এজন্য হলের সবগুলো রুমে চেক করে। হল থেকে চুরি হওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে ভাষা শহীদ আব্দুস সালাম হলের প্রভোস্ট ড.গাজী মো.মহসীন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আর কোন বিশ্ববিদ্যালয় এমন ঘটনা হয় কিনা আমার জানা নেই।

হলে শিক্ষার্থী এবং নিরাপত্তা কর্মী থাকা অবস্থায়হল থেকে চুরি হওয়া এটা খুবই দুংখজনক। আজ থেকে হলে তালা এবং হলে বাড়তি নিরাপত্তা কর্মী দেওয়া হয়েছে।আশা করি এমন ঘটনার আর পুনরাবৃত্তি ঘটবে না। আর ঈদের ছুটির পর এই বিষয়ে শিক্ষক,শিক্ষার্থীদের নিয়ে বসবো এবং যারা এই ঘটনার সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করব। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, বিগত বছর গুলোতে ঈদের ছুটিসহ অন্যান্য ছুটিতে ফাঁকা হলে চুরির ঘটনা ঘটলেও প্রশাসন বরাবরই উদাসীন ভূমিকা পালন করছে।

উল্লেখ্য গত বছরেও ঈদের ছুটিতে শিক্ষার্থীরা বাড়িতে গেলে হলের বেশ কয়েকটি কক্ষের তালা ভেঙ্গে আলমারি ও গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপত্র চুরি হয়ে যায় কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন কার্যকরী ব্যবস্থা না নেওয়া শিক্ষার্থীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সাদ্দাম হোসেন বলেন, এই রকম ন্যাক্কারজনক কাজ আগেও ঘটেছে। আমরা প্রশাসনকে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলেছি। সত্যিকারভাবে প্রশাসনকে ছাত্র বান্ধব হতে।

অমৃতবাজার/হাসিব/এএস