ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯ | ৭ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

৭ কলেজের সংকট সমাধানে ঢাবি উপাচার্যকে ছাত্রলীগের স্মারকলিপি


অমৃতবাজার রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৪:২৯ পিএম, ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার
৭ কলেজের সংকট সমাধানে ঢাবি উপাচার্যকে ছাত্রলীগের স্মারকলিপি

 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত রাজধানীর সাত কলেজ সংকটের স্থায়ী সমাধানে উপাচার্য মোহাম্মদ আখতারুজ্জামানের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। আজ মঙ্গলবার দুপুরে ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের নেতৃত্বে এ স্মারকলিপি দেয়া হয়।

স্মরকলিপি প্রদানের আগে  অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন ছাত্রলীগ। এখানে বক্তব্য রাখেন  ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। এসময় তিনি বলেন,শিক্ষার মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে সাত কলেজকে ঢাবির অধিভুক্ত করা হয়েছিল, কিন্তু সেই লক্ষ্য ব্যাহত হচ্ছে।

তবে আমরা সাধারণ শিক্ষার্থীরা অধিভুক্ত সাত কলেজের পক্ষে। তাদের প্রতি আমাদের পূর্ণ সমর্থন আছে। কিন্তু ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে একটি মহল তাদের বিশেষ স্বার্থ হাসিলের চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

সাধারণ শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফেরার আহ্বান জানিয়ে গোলাম রাব্বানী বলেন, আগামীকাল বুধবার থেকে আপনার ক্লাসে যাবেন। যারা বাধা দেবে তাদের দাঁতভাঙা জবাব দেয়া হবে। তিনি বলেন, সাত কলেজের সংকট সমাধানে আমরা ইতিমেধ্য শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি আমাদের আশ্বস্ত করেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফিরলে আগস্ট মাসের মধ্যেই ডাকসু ও ছাত্রলীগের প্রতিনিধি এবং বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে নিয়ে আলোচনা হবে। আলোচনার মাধ্যমেই সমস্যার সমাধান হবে।

ক্যাম্পাসে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না করার আহ্বান জানিয়ে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আজ ক্যাম্পাসে যেসব তালা লাগানো হয়েছে সেগুলো রাতে ডাকসুর এক সম্পাদকের রুমে ছিল। আমরা আশঙ্কা করছি নিরাপদ সড়ক আন্দোলন, কোটা সংস্কার আন্দোলনের মতো একটি মহল বিশৃঙ্খল পরিবেশ সৃষ্টির চেষ্টা করছে। সমাবেশ শেষে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ক্যাম্পাসে একটি মিছিল বের করেন। পরে তারা উপাচার্যের কার্যালয়ে গিয়ে স্মারকলিপি প্রদান করেন।

সারজমিনে গিয়ে দেখা যায়, এসময় উপাচার্যের কার্যালয় তালাবদ্ধ থাকলে ছাত্রলীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক এর নেতৃত্বে জোর করে তালা ভেঙে আন্দোলনকারীদের হটিয়ে তারা ভেতরে প্রবেশ করে। এই সময় নারী আন্দোলনকারীদের লাঞ্ছিত এবং হতাহতের ঘটনা ঘটে। তখন জোর করে আন্দোলনকারী দের ঘটনাস্তল ত্যাগ করতে বাধ্য করে। এ সময় তার আন্দোলনকারীদের বিভিন্ন হুমকি-ধামকি প্রদান করে। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর এর নেতৃত্বে সমাজসেবা সম্পাদক এর উপর হামলার প্রতিবাদে সাধারণ শিক্ষার্থীদের নিয়ে একটি বিক্ষোভ মিছিল করেন।

অমৃতবাজার/এএস