ঢাকা, শনিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৯ | ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

নিজস্ব অর্থায়নে ইবিতে আইআইইআর ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন


অনি আতিকুর রহমান, ইবি

প্রকাশিত: ০৬:২৪ পিএম, ২৫ মে ২০১৯, শনিবার
নিজস্ব অর্থায়নে ইবিতে আইআইইআর ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারী (বাঁয়ে) ভবনের মুল নকশা (ডানে)।

নিজস্ব অর্থায়নে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ইন্সটিটিউট অফ ইসলামিক এডুকেশন এন্ড রিসার্চ (আইআইইআর) ভবনের কাজ শুরু হয়েছে। শনিবার বেলা আড়াইটার দিকে ক্যাম্পাসস্থ লেকের পাশে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের মাধ্যমে কাজের উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারী। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা।

আইআইইআর- এর পরিচালক অধ্যাপক ড. মেহের আলীর সঞ্চালনায় এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম আবদুল লতিফ, সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান, ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর ড. আনিছুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী আলিমুজ্জামান খান টুটুল প্রমুখ।

প্রকৌশল অফিস সূত্রে জানা যায়, ৫ তলা ভবনের নকশার কাজ উদ্বোধন করা হলেও প্রাথমিকভাবে একতলার কাজ শুরু হচ্ছে। একতলা কাজটির ঠিকাদারী পেয়েছে কুষ্টিয়ার ‘ইউনিক কন্সট্রাাকশন’ নামের একটি প্রতিষ্ঠান। ১ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিতব্য এই ভবনটির কাজ আগামী এক বছরের মধ্যে সমাপ্ত করার নির্দেশনা রয়েছে। ভবনটির নকশার ডিজিইন করেন ইবির ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী আলিমুজ্জামান খান টুটুল।

আইআইইআর পরিচালক ড. মেহের আলী জানান, ইন্সটিটিউটের নিজস্ব অর্থায়নে ভবনটি নির্মাণ করা হচ্ছে। ভবনের মুল নকশায় রয়েছে শিক্ষার্থীদের ক্লাস রুম, কনফারেন্স রুম, লাইব্রেরী, শিক্ষকদের অফিস রুম, কমন রুম, পরিচালকের অফিস এবং অতিথিদের আবাসিক ব্যবস্থা। 

উদ্বোধনকালে উপাচার্য ড. রাশিদ আসকারী বলেন, আমি ভীষণ আনন্দিত যে নিজস্ব অর্থায়নে আইআইইআর ভবনটি নির্মিত হতে যাচ্ছে। এটি আমাদের আত্মবিশ্বাস ও আত্মনির্ভরতার প্রতীক। এর ফলে বিশ্ববিদ্যালয় অবকাঠামোগত এবং পঠন-পাঠন-গবেষণাক্ষেত্রে অসামান্য উচ্চতায় উন্নীত হবে।

উপ-উপাচার্য ড. শাহিনুর রহমান বলেন, আইআইইআর-এর মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি তৈরি হচ্ছে। আইআইইআর-এর নিজস্ব ভবন নির্মাণকাজ সম্পন্ন হলে তা হবে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিকীকরণের ক্ষেত্রে একটি বড় ধরণের অগ্রগতি।

কোষাধ্যক্ষ ড. সেলিম তোহা বলেন, আইআইইআর ভবনটি নিজস্ব অর্থায়নে নির্মিত হবে। ভবনটির নির্মাণকাজ নির্দিষ্ট সময়ে যেন সমাপ্ত হতে পারে সেজন্য তিনি সকলের দোয়া কামনা করেন।

অমৃতবাজার/এআর