ঢাকা, রোববার, ২৬ মে ২০১৯ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

১৮ প্রস্তাবনায় বেরোবি উপাচার্যকে শিক্ষক সমিতির স্মারকলিপি


বেরোবি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১২:০৩ এএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৯, বুধবার
১৮ প্রস্তাবনায় বেরোবি উপাচার্যকে শিক্ষক সমিতির স্মারকলিপি

ক্যাম্পাসে উপাচার্যের সার্বক্ষনিক অবস্থান, প্রো-ভিসি ও ট্রেজারার নিয়োগ, বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামোগত উন্নয়ন ত্বরান্বিত করা, সিন্ডেকেটসহ সকল সভা ক্যাম্পাসে আয়োজন করা এবং নতুন শিক্ষকদের অনিয়মতান্ত্রিক ফাউন্ডেশন ট্রেনিং বন্ধ করাসহ ১৮ টি প্রস্তাবনা সম্বলিত স্মারকলিপি প্রদান করেছে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি।

মঙ্গলবার দুপুরে উপাচার্য প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহর অনুপস্থিতে তাঁর ব্যক্তিগত সচিব (পিএস) আমিনুর রহমানের হাতে স্মারলিপি তুলে দেন শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ। এসময় উপস্থিত ছিলেন, শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. গাজী মাজহারুল আনোয়ার, সাধারণ সম্পাদক খাইরুল কবীর সুমন ও কোষাধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আলম নীরব।

শিক্ষক সমিতির প্রস্তাবনা গুলো হলো, চ্যান্সেলর কর্তৃক প্রদত্ত নিয়োগ শর্ত অনুযায়ী উপাচার্যকে সার্বক্ষণিক বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থান করা, বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন প্রকল্পের দ্বিতীয় ফেজের কার্যক্রম বাস্তবায়নে ব্যবস্থা গ্রহণ করা, বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল সিন্ডিকেট, নিয়োগ বোর্ড, অর্থ কমিটির সভাসহ সকল সভা ক্যাম্পাসে আয়োজন করা, নতুন যোগদানকৃত শিক্ষকবৃন্দের অনিয়মতান্ত্রিক ফাউন্ডেশন ট্রেনিং বন্ধ করে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক সংকট লাঘব করা, শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে নিয়োগ বোর্ডের সকল সদস্যদের উপস্থিতিতে লিখিত পরীক্ষার মাধ্যমে গ্রহণযোগ্য পদ্ধতিতে নিয়োগের কার্যক্রম সম্পন্ন করা, সিএসই,পরিসংখ্যান এবং রসায়ন বিভাগসহ বিভিন্ন বিভাগে কর্মরত আপগ্রেডেশন/প্রমোশনের যোগ্যতা অর্জনকারি শিক্ষকবৃন্দের আপগ্রেডেশন/প্রমোশন দিতে হয়রানি না করা, অর্গানোগ্রাম অনুযায়ী ইউজিসি থেকে জরুরী ভিত্তিতে শিক্ষক পদ অনুমোদন নিয়ে অস্থায়ী পদে চাকরিরত শিক্ষকবৃন্দের চাকরি স্থায়ীকরণ, উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণারত শিক্ষকদের শিক্ষাছুটি ৭ বছর নির্ধারণ করে অতিদ্রুত শিক্ষাছুটি নীতিমালা প্রণয়ণ, এনওসি (ঘঙঈ) ও অভিজ্ঞতা সনদসহ যাবতীয় জরুরী বিষয়াদির প্রক্রিয়া ২-৩ কার্যদিবসের মধ্যে সম্পন্ন করা, সকল পরীক্ষার পারিতোষিক ফলাফল প্রকাশের এক মাসের মধ্যে পরিশোধ করা, বিশ্ববিদ্যালয়ে ট্রেজারার ও প্রো-ভিসি নিয়োগ প্রদানের জন্য পয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা, বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রম ফলপ্রসু করতে অনুষদে উপস্থিত যোগ্য শিক্ষককে ডিন ও বিভাগে উপস্থিত যোগ্য শিক্ষককে বিভাগীয় প্রধানের দায়িত্ব প্রদান করা, বিশ্ববিদ্যালয়ের গেজেট অনুযায়ী বিভাগের একাডেমিক প্লানিং কমিটি গঠন করা, বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ সম্প্রসারণ, সনাতন ধর্মালম্বীদের জন্য উপাসানালয় স্থাপন, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের বিভাগীয় প্রধানকে যথাযথ মর্যাদায় নিয়োগ প্রদান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বেগম রোকেয়ার প্রতিকৃতি স্থাপন এবং ক্যাম্পাসে ব্যাংকের স্থায়ী শাখা স্থাপন।

স্মারকলিপি গ্রহনের বিষয়টি নিশ্চিত করে উপাচার্যের পিএস আমিনুর রহমান বলেন, স্মারকলিপির বিষয়টি উপাচার্যকে অবগত করা হয়েছে। এবিষয়ে জানতে চাইলে শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. গাজী মাজহারুল আনোয়ার বলেন, ১৮ টি জরুরী বিষয় প্রস্তাবনা আকারে উপাচার্যের সামনে উপাস্থাপন করা হয়েছে। আশাকরি, উপাচার্য এবিষয়ে পদক্ষেপ নেবেন।

অমৃতবাজার/আরবি