ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

‘নজরুলের মত দ্বৈতসত্তার কবি বাংলা সাহিত্যে দ্বিতীয়জন নেই’


ইবি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ০৭:৫৪ পিএম, ০৮ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার
‘নজরুলের মত দ্বৈতসত্তার কবি বাংলা সাহিত্যে দ্বিতীয়জন নেই’

‘নজরুল একদিকে বাংলা গজল ও হামদ-নাত লিখেছেন আবার অন্যদিকে শ্যামা সংগীত কীর্তন লিখেছেন। এ রকম দ্বৈত ও সামগ্রিক সত্তার কবি বাংলা সাহিত্যে দ্বিতীয়জন নেই।’ সংস্কৃতি মন্ত্রনালয়ের আয়োজনে কুষ্টিয়ায় ৩দিনব্যাপী নজরুল সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারী এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, `নজরুল মানুষের কবি। যিনি সকল ধর্মীয় সংকীর্ণতার উর্ধ্বে উঠে নিজেকে বিশ্বমানব হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। আমাদের নজরুল হোক সারাবিশ্বের। তাই তার সাহিত্যকর্ম ইংরেজি ভাষায় অনুবাদের মাধ্যমে আমরা একদিকে নজরুলকে বর্হিবিশ্বে যেমন পরিচিত করে তুলতে পারব, তেমনি একটি অসাম্প্রদায়িক ও মানবিক পৃথিবী গঠনের সহায়ক হবে।`

জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় কালেক্টরেট চত্বর থেকে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে এ উপলক্ষে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়। পরে দিশা মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেনের সভাপতিত্বে এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি মন্ত্রনালয়ের সাবেক সচিব বেগম আকতারী মমতাজ, সিভিল সার্জন ডা. মমতাজ আরা বেগম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার একেএম জহিরুল ইসলাম। মূখ্য আলোচক ছিলেন নজরুল ইন্সটিটিউটের নির্বাহী পরিচালক(অতিরিক্ত সচিব) মো. আব্দুর রাজ্জাক ভূঁইয়া, আলোচক ছিলেন স্থানীয় সরকার অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোস্তাক আহমেদ ও নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মাসুদ রহমান। সভায় স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন নজরুল ইন্সটিটিউটের সচিব আব্দুর রহিম।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন বলেন, `নজরুলকে নতুন প্রজন্মের সান্নিধ্যে আনতে হলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নজরুল চর্চা বাড়াতে হবে।`

আলোচনা শেষে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

অমৃতবাজার/অনি/শাওন