ঢাকা, সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

রাবিতে গভীর শোক-শ্রদ্ধায় বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ


রাবি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ০৬:০৩ পিএম, ১৫ আগস্ট ২০১৮, বুধবার
রাবিতে গভীর শোক-শ্রদ্ধায় বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ

গভীর শোক ও শ্রদ্ধায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) জাতীয় শোকদিবস পালন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠন। বুধবার দিবসের শুরুতে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে প্রশাসনভবনসহ অন্যান্য ভবনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়।

সকাল পৌনে ৭টায় উপাচার্যের নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারীবৃন্দ কালো ব্যাজ ধারণ করে শোক মিছিল করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।

সেখানে তারা বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন ও তাঁর রুহের মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাতও করেন।

এ সময় উপাচার্য এম আব্দুস সোহবান, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা ও অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়াসহ কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান আল-আরিফ ও রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এম এ বারী, অনুষদ অধিকর্তা, বিভাগীয় সভাপতি, ইনস্টিটিউট পরিচালক, হল প্রাধ্যক্ষ, দফতর প্রধানবৃন্দ অংশ নেয়।

এরপর বিভিন্ন আবাসিক হল, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, ক্যাম্পাসের স্কুলসমূহ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন, সাংবাদিক সংগঠনসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠান এবং পেশাজীবী ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন সেখানে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।

পরে বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনার মুক্তমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় শোক সমাবেশ। এই সমাবেশে বক্তৃতা করেন উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা ও উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া।

সমাবেশটি সঞ্চালনা করেন জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক ও ছাত্র-উপদেষ্টা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক প্রভাষ কুমার কর্মকার।

এর পর সকাল পৌনে ৯টায় শেখ রাসেল মডেল স্কুলে অনুষ্ঠিত হয় চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা। প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা ও উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া। এরপর সকাল সাড়ে ৯টায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলে অনুষ্ঠিত হয় রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা।

এদিনের কর্মসূচিতে আরো ছিল বাদ জোহর বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে কোরআনখানি ও মিলাদ মাহফিল এবং সন্ধ্যা ৬টায় কেন্দ্রীয় মন্দিরে বিশেষ প্রার্থনা। সন্ধ্যা ৭টায় শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধুর ওপর তথ্যচিত্র প্রদর্শনী।

অমৃতবাজার/শিহাবুল/সুজন