ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

রাবির হলে আবেদনযোগ্যতা না থাকলেও আবাসিকতা প্রদান!


রাবি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ০৫:১১ পিএম, ০৯ নভেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার
রাবির হলে আবেদনযোগ্যতা না থাকলেও আবাসিকতা প্রদান!

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শের-ই-বাংলা ফজলুল হক হলে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের আবাসিকতার আবেদনযোগ্যতা না থাকলেও দুই শিক্ষার্থীকে আবাসিকতা দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার ওই হলের নোটিশ বোর্ডে প্রাধ্যক্ষ স্বাক্ষরিত আসন বরাদ্দ তালিকায় বিষয়টির প্রমাণ পাওয়া গেছে।

হল প্রশাসন আর্থিক বিবেচনায় মানবিক দৃষ্টিকোন থেকে তাদের আবাসিকতা দেওয়ার কথা বললেও হলের শিক্ষার্থীরা বলছেন ভিন্ন কথা।

সরেজমিনে নোটিশ বোর্ডে দেখা গেছে, শের-ই-বাংলা ফজলুল হক হলের অনাবাসিক ছাত্রদের জৈষ্ঠতা ও মেধার ভিত্তিতে আবাসিকতা প্রদানের জন্য নির্বাচিত করা হলো। তবে তালিকার ১২ ও ১৯ নম্বর ক্রমিকে দুইজন প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীর নাম রয়েছে। অবশ্য তালিকায় নির্বাচিত কারোরই কক্ষ বরাদ্দ দেয়া হয়নি।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হলের কয়েকজন আবাসিক শিক্ষার্থী জানান, হলে তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীরা একাধিকবার আবেদন করেও আবাসিকতার জন্য নির্বাচিত হয় না। অথচ আবেদনের যোগত্যা না থাকলেও কিভাবে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা আবাসিকতার জন্য নির্বাচিত হয়।

তারা বলেন, আর্থিক বিষয়টিই যদি বিবেচনা করে তাদের আবাসিকতা দেওয়া হয়, তাহলে তাদের কক্ষে তুলে দিবে কে? হল প্রশাসন তো কোন শিক্ষার্থীকে কক্ষের ব্যবস্থা করে দিতে পারে না। তাহলে তাদের লাভ কি হবে?

যোগ্যতার বাইরে গিয়ে তাদের আবাসিকতা দেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে শের-ই-বাংলা ফজলুল হক হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মোস্তফা তারিকুল আহসান বলেন, দুই জনের আর্থিক অবস্থা খুবই খারাপ। মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে তাদের আবাসিকতার জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে। তাদের কক্ষ বরাদ্দ দেওয়া হয়নি। হল প্রশাসন নিজ উদ্যোগে তাদেরকে কক্ষের ব্যবস্থা করে দিবে বলেও জানান তিনি।

অমৃতবাজার/শিহাবুল/মিঠু

Loading...