ঢাকা, রোববার, ২৬ জানুয়ারি ২০২০ | ১৩ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

নতুন বাজার ও পণ্য বহুমুখীকরণে জোড় দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী


অমৃতবাজার রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৫:০৮ পিএম, ০৯ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার | আপডেট: ০৫:০৯ পিএম, ০৯ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার
নতুন বাজার ও পণ্য বহুমুখীকরণে জোড় দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি: সংগৃহীত

বস্ত্রখাতের উন্নয়নে নতুন নতুন বাজার খোঁজার পাশাপাশি পণ্যের বহুমুখীকরণের উপরও জোর দিতে হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । জাতীয় বস্ত্র দিবস – ২০১৯ উদযাপন এবং জাতীয় বস্ত্র পণ্য মেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে একথা বলেন তিনি। বক্তব্যে একইসঙ্গে পাট ও রেশমের ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে বেসরকারি খাতের উদ্যোক্তাদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘নতুন নতুন বাজার খোঁজার পাশাপাশি পণ্যের বহুমুখীকরণের উপরও জোর দিতে হবে। একই জিনিস সবসময় চলে না। কাজেই পোশাকের ক্ষেত্রেও রং ডিজাইন সবকিছু সময়ের সাথে সাথে পরিবর্তিত হয়। নতুন নতুন পণ্য বাজার খুঁজে বের করতে হবে। কোন সিজনে কখন কোন রং প্রভাব ফেলে, এর সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই আমাদের উৎপাদন বহুমুখী করা প্রয়োজন বলে মনে করি।’ যে কোনো পণ্য বাজারজাত করতে গেলে পণ্যের বৈচিত্র ধরে রাখা খুব দরকার বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বস্ত্রখাতে উন্নয়নের নানা চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘আমাদের রপ্তানি আয় তিনগুণ বেড়েছে। মাথাপিছু আয় বেড়েছে তিন গুণ। জিডিপি ৮.১৫ হারে বৃদ্ধি করতে সক্ষম হয়েছি। আমাদের তৈরী পোশাক খাত যথেষ্ট অবদান রাখছে অর্থনীতিতে। আমরাও সরকারের পক্ষ থেকে যথেষ্ট প্রণোদনা দিচ্ছি।’

তিনি আরও বলেন, `টেক্সটাইল ইউনিভার্সিটি তৈরি করেছি। এক সময় মসলিনের অনেক সুনাম ছিলো, কিন্তু ধীরে ধীরে সেটা হারিয়ে যেতে বসেছে। আমরা মসলিন নিয়েও গবেষণা করছি। বস্ত্র শিল্পের বিকাশে সব ধরনের শুল্ক মওকুফ করেছি।’

বাংলাদেশ এখন বিশ্ব পোশাক বাজারে দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান করছে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, বস্ত্রখাতে মেয়েদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছি, যার ফলে মেয়েরা এ ক্ষেত্রেও অবদান রাখতে পারছে। প্রতিবেশী দেশের সাথে যোগাযোগ করে আমাদের বাজারটাও যেনো আরো এগিয়ে নিতে পারি সে বিষয়েও চেষ্টা করছি।

অমৃতবাজার/এসএইচএম