ঢাকা, রোববার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ | ১ পৌষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিমানে করে পেঁয়াজের প্রথম চালান আসছে মঙ্গলবার


অমৃতবাজার রিপোর্ট 

প্রকাশিত: ০৯:৩১ পিএম, ১৬ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার
বিমানে করে পেঁয়াজের প্রথম চালান আসছে মঙ্গলবার

 

মিসর থেকে কার্গো বিমানযোগে আমদানি করা পেঁয়াজের প্রথম চালান মঙ্গলবার ঢাকায় পৌঁছাবে বলে জানিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। এস আলম গ্রুপ বিমানযোগে বিপুল পরিমাণ পেঁয়াজ আমদানি করছে বলে জানানো হয়েছে। এটি সেই আমদানির প্রথম চালান। পর্যায়ক্রমে অন্য আমদানিকারকদের আমদানি করা পেঁয়াজও কার্গো উড়োজাহাজ যোগে ঢাকায় পৌঁছাবে।

শনিবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পণ্য খালাসের পরপরই তা পেঁয়াজ নিয়ে সৃষ্ট পরিস্থিতি সামলাতে বাজারে ছাড়া হবে।

পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির পর থেকে বাজার নিয়ন্ত্রণে নানামুখী উদ্যোগ ব্যর্থ হওয়ার পর বিমানে করে এই খাদ্যপণ্য আমদানির সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কার্গো বিমানে পেঁয়াজের প্রথম চালান আসবে মিসর থেকে। পেঁয়াজের এই চালান নিয়ে আসছে এস আলম গ্রুপ। পর্যায়ক্রমে অন্য আমদানিকারকদের পেঁয়াজও কার্গো বিমানে আসবে।

শনিবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের জাতীয় সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন, দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে বিমানে করে পেঁয়াজ আনা হচ্ছে এবং এর মাধ্যমে পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

ঢাকার বাজারগুলোতে বর্তমানে প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ ২৩০ থেকে ২৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। পাইকারি বাজারগুলোতে ভালোমানের দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে প্রতিকেজি ২২০ টাকা থেকে ২৩০ টাকায়, মিয়ানমারের পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ১৮০ টাকা থেকে ১৯০ টাকায়, আর মিসর-তুরস্কের পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকা থেকে ১৭০ টাকায়।

এদিকে অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, অর্থ ছাড়ে বিলম্বের কারণে যেন পেঁয়াজ আমদানিতে কোনো সমস্যা তৈরি না হয়, সেজন্য পেঁয়াজ আমদানিতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় যখন যে পরিমাণ টাকা চাইবে, অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে তাৎক্ষণিকভাবে সেই অর্থ ছাড় করা হবে।

সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়ার পর দেশে পেঁয়াজের বাজারে অস্থিতিশীলতা দেখা দেয়। আর সেই অবস্থার সেসময় থেকে ক্রমেই লাগামহীন হয়ে চলেছে।

অমৃতবাজার/এএস