ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নেতৃত্বে টাস্কফোর্স


অমৃতবাজার রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৬:৫০ পিএম, ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নেতৃত্বে টাস্কফোর্স

 

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে ও দুর্ঘটনা কমাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালকে প্রধান করে টাস্কফোর্স গঠনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মো. নজরুল ইসলামকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। জাতীয় সড়ক নিরাপত্তা কাউন্সিলের সুপারিশ বাস্তবায়নে এক সপ্তাহের মধ্যে কাজ শুরু করবে এই টাস্কফোর্স।

বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর বনানীতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) কার্যালয়ে জাতীয় সড়ক নিরাপত্তা কাউন্সিলের সভা শেষে সাংবাদিকদের এই সিদ্ধান্তের কথা জানান সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, সড়ক-মহাসড়কে দুর্ঘটনার সংখ্যা কমলেও হতাহতের সংখ্যা বেড়েছে। এটি নিয়ন্ত্রণে কঠোরভাবে সড়ক মনিটরিং প্রয়োজন। টাস্কফোর্স সেই কাজটি করবে। সড়ক পরিবহন ও সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে তাদের দাবি অনুযায়ী করণীয় সুনির্দিষ্ট করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা ও দুর্ঘটনা কমাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের নেতৃত্বে একটি টাস্কফোর্স গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে এই টাস্কফোর্স কাজ শুরু করবে। এই টাস্কফোর্সে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি ছাড়াও পুলিশের আইজিপি, ডিএমপি কমিশনার, উত্তর দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী, বিআরটিএ ও বিআরটিসির প্রধান প্রকৌশলী, বিআরটিএ/বিআরটিসির চেয়ারম্যান, ডিটিসিএ-এর নির্বাহী পরিচালক, পরিবহন মালিক সমিতির প্রতিনিধি, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের প্রতিনিধি, ট্রাক কাভার্ডভ্যান মালিক সমিতির প্রতিনিধি, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রতিনিধি, মো. সামসুল হক, সৈয়দ আবুল মকসুদ, ইলিয়াস কাঞ্চন ও হাইওয়ে পুলিশের ডিআইজি টাস্কফোর্সের সদস্য হবেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, টাস্কফোর্সে সড়ক পরিবহন-মহাসড়ক বিভাগের সচিব সাচিবিক দায়িত্ব পালন করবেন। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় এবং যে সমস্ত প্রয়োজনীয় সংস্থা রয়েছে, তাদেরকে নিয়ে আমরা শক্তিশালী টাস্কফোর্স গঠন করেছি।

মন্ত্রী বলেন, ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ৪ লেনে উন্নীত করতে এডিবি অর্থ দেবে।ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে আলাদা সার্ভিস লেন তৈরি করতে প্রকল্প হাতে নেয়া হবে। ঢাকা-সিলেট মহাসড়কসহ অন্য মহাসড়ক যেহেতু ৪ লেন নয়, তাই ৪ লেন করার সময় সার্ভিস লেনের পরিকল্পনা করেই তৈরি করা হবে।

ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে সভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, রেলপথমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি একাব্বর হোসেন, বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতি শাজাহান খান, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি মসিউর রহমান রাঙ্গা, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) জাবেদ পাটোয়ারী, সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব নজরুল ইসলাম, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) অধ্যাপক শামসুল হক, নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অমৃতবাজার/এএস