ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৭ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

প্রাথমিক শিক্ষকের নতুন ৬১ হাজার পদ সৃষ্টি


অমৃতবাজার রিপোর্ট 

প্রকাশিত: ০৬:৫২ পিএম, ২৪ আগস্ট ২০১৯, শনিবার
প্রাথমিক শিক্ষকের নতুন ৬১ হাজার পদ সৃষ্টি

 

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষক সংকট নিরসনের লক্ষে ৬১ হাজার ১৬৬ জন শিক্ষকের নতুন পদ সৃষ্টি করছে সরকার। এ সংক্রান্ত পরিকল্পনা ইতোমধ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

সম্প্রতি সচিবালয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচির প্রথম যৌথ বার্ষিক সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, দেশে বর্তমানে শিক্ষকের সংখ্যা তিন লাখ ২২ হাজার ৭৬৬ জন। এর মধ্যে বর্তমান সরকারের সময় নিয়োগ হয়েছে এক লাখ ৩০ হাজার ১০০। এ ছাড়াও সহকারী প্রাথমিক শিক্ষকের নিয়োগ পরীক্ষাও চলছে। চলমান সহকারি শিক্ষক পরীক্ষা শেষ হলে ২০২০ সালে উত্তীর্ণদের নিয়োগ দেয়া হবে। এরপরে নতুন পদে ফের শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে।

গত ৪ আগস্ট শুরু হওয়া ১৮ দিনব্যাপী পর্যালোচনা সভার সমাপনী বক্তব্যে মো. আকরাম-আল-হোসেন বলেন, সকলের সহযোগিতায় চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়িত হবে। এ কর্মসূচির মূল লক্ষ্যই হলো প্রি-প্রাইমারি হতে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত সকল শিশুর মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিতকরণ।

সভায় এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি), ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ), জাপান আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা (জাইকা), জাতিসংঘ শিশু তহবিল (ইউনিসেফ) এবং বিশ্বব্যাংকের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন।

পর্যালোচনা সভায় এক বছরে হাতে নেয়া বিভিন্ন কর্মকাণ্ড পর্যালোচনা করা হয়। এছাড়াও চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচির পাঁচটি বিষয় নিয়ে গ্রুপ ডিসকাশন হয়। এতে শিক্ষার মান ও শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা, ব্যবস্থাপনা ও সুশাসন, অর্থ ও ক্রয় ব্যবস্থাপনা এবং সুষ্ঠু সমন্বয় এবং অংশীদারিত্ব নিশ্চিত করার বিষয়ে আলোচনা হয়।

অমৃতবাজার/এএস