ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮ | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মেয়েকেও চিনতে পারছেন না সৈয়দ আশরাফ


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:০৭ এএম, ০৫ নভেম্বর ২০১৮, সোমবার | আপডেট: ০১:৫৯ পিএম, ০৫ নভেম্বর ২০১৮, সোমবার
মেয়েকেও চিনতে পারছেন না সৈয়দ আশরাফ ফাইল ছবি

কিশোরগঞ্জ-১ আসনের সাংসদ, আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম গুরুতর অসুস্থ। তিনি ফুসফুসের ক্যান্সারে ভুগছেন। কাউকে চিনতে পারছেন না, এমনকি নিজের মেয়েকেও নয়। বর্তমানে তিনি ব্যাংককের একটি হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

রোববার বিকেলে কিশোরগঞ্জে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জেল হত্যা দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন সৈয়দ আশরাফের ছোট ভাই অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল সৈয়দ শাফায়াতুল ইসলাম।

তিনি বলেন, আমার ভাইয়ের অসুস্থতা নিয়ে অনেকেই মিথ্যা কথা বলছেন। দ্রুত সুস্থ হয়ে রাজনীতিতে ফিরে আসার কথা বলছেন। এসব পুরোপুরি মিথ্যা কথা। তাকে নিয়ে নানা ধরনের অপপ্রচার ও স্বার্থসিদ্ধির চক্রান্ত হচ্ছে।

তিনি বলেন, এমন পরিস্থিতিতে তার রাজনীতিতে ফিরে আসার সম্ভাবনা খুবই কম। আমরা এখন রাজনীতি নয়, তার চিকিৎসার দিকেই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি।

তিনি সৈয়দ আশরাফের জন্য দোয়া করতে সবার প্রতি অনুরোধ জানিয়ে উল্লেখ করেন, তিন দিন আগে ব্যাংকক থেকে এসেছি। তিনি আমাকে চিনতে পারছেন না, নিজের মেয়েকে পর্যন্ত চিনতে পারছেন না। কাউকেই চিনতে পারছেন না। তিনি গুরুতর অসুস্থ।

সৈয়দ শাফায়াতুল ইসলাম আরো বলেন, সৈয়দ আশরাফ একজনই, তিনি অপ্রতিদ্বন্দ্বী। একদিন বাংলাদেশের ইতিহাস লেখা হবে তখন তিনি সৈয়দ নজরুল ইসলামকে (তাদের বাবা) ছাড়িয়ে যাবেন। তিনি হবেন ইতিহাসের মহানায়ক।

এ সময় সৈয়দ শাফায়াতুল ইসলাম ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের পর ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে আটক তার বাবা স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলামের সঙ্গে অক্টোবরের শেষ সপ্তাহে শেষ সাক্ষাতে কথোপকথন উল্লেখ করে তিনি বলেন, সেদিন তিনি (সৈয়দ নজরুল ইসলাম) স্পষ্ট ভবিষ্যৎ বাণী করেছিলেন যে ঘাতকরা তাকে বাঁচতে দেবে না, মেরে ফেলবে। আসলে তাই হচ্ছে এখন।

শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. রুহুল আমিন খানের সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান শাহজাহান, কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শফিকুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. সুলতানা রাজিয়া, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শরীফ সাদী, জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক এনায়েত করিম অমি ও জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক বিলকিস বেগম প্রমুখ।

অমৃতবাজার/সুজন