ঢাকা, রোববার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধুর ৬ জীবিত খুনির কে কোথায়?


অমৃতবাজার রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১০:১৫ এএম, ১৫ আগস্ট ২০১৮, বুধবার
বঙ্গবন্ধুর ৬ জীবিত খুনির কে কোথায়?

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যার দায়ে ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করার পর বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার বিচার শুরু হয়। বিচারে ১২ আসামির বিরুদ্ধে মৃত্যুদণ্ডাদেশ আসে আদালতের রায়ে। পরবর্তীতে ১২ খুনির মধ্য থেকে পাঁচ খুনির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। এর আগে ২০০১ সালে আরেক আসামি আজিজ পাশার স্বাভাবিক মৃত্যু হয় জিম্বাবুয়েতে। বাকি ছয় আসামি বাংলাদেশের বাইরে বিভিন্ন দেশে পলাতক আছে।

জানা গেছে, তাদের মধ্যে নূর চৌধুরী কানাডায়, রাশেদ চৌধুরী যুক্তরাষ্ট্রে, মোসলেম উদ্দিন জার্মানিতে ও শরিফুল হক ডালিম স্পেনে আছে। তাছাড়া খন্দকার আবদুর রশিদ পাকিস্তানে আছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। তবে আরেক আসামি আবদুল মাজেদ কোন দেশে পলাতক আছে, তার কোনো তথ্য জানা যায়নি।

এদিকে এই ছয়জনের পাসপোর্ট বাতিলের নির্দেশ দিয়েছে সরকার। গত ২৮ জুন  পাসপোর্ট অধিদফতরকে এই নির্দেশ দেয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

তাছাড়া নূর চৌধুরী ও রাশেদ চৌধুরীকে দেশে ফিরিয়ে আনতে আইনি পরামর্শক প্রতিষ্ঠান স্কাডেন এলএলপিকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে নূর চৌধুরীর রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন কানাডার উচ্চ আদালত খারিজ করে দিলেও ফেরত পাঠানোর আগে ঝুঁকি মূল্যায়নের (প্রিরিমোভাল অ্যাসেসমেন্ট রিস্ক) আরেকটি আবেদনের এখনো নিষ্পত্তি হয়নি।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর খুনি নূর চৌধুরীকে কানাডা তাদের দেশ থেকে বের করে দিতে চায়। কিন্তু কানাডার আইনে মৃত্যুদণ্ডের বিধান না থাকায় তারা তাকে ফিরিয়ে দিতে পারছে না। তারা চায় না কোনো আসামিকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হোক।

এদিকে স্কাডেন এলএলপি সম্প্রতি জানিয়েছে, রাশেদ চৌধুরীকে ফেরত পাঠাতে ইতিবাচক মনোভাব দেখিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

মোসলেম উদ্দিন ও শরিফুল হক ডালিমকে দেশে ফেরত আনতে যথাক্রমে জার্মানি ও স্পেন সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেছে বাংলাদেশ সরকার।

আর আবদুর রশিদ পাকিস্তানে আছে— এমন তথ্য জানার পর গত ডিসেম্বরে সে দেশের সরকারকে চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। তবে এর কোনো জবাব মেলেনি।

অমৃতবাজার/জয়