ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

আগামী কাল শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব


নিজস্ব সংবাদদাতা

প্রকাশিত: ০৯:৩০ এএম, ১৮ জানুয়ারি ২০১৮, বৃহস্পতিবার
আগামী কাল শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব ফাইল ছবি

টঙ্গীর তুরাগ তীরে ১৯ জানুয়ারি শুক্রবার অনানুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়ে ২১ জানুয়ারি দুপুরে অর্থাৎ জোহরের নামাজের আগেই যে কোনো এক সময় আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে সমাপ্তি ঘটবে ৫৩তম বিশ্ব  ইজতেমার ।

ইতোমধ্যে ইজতেমার সার্বিক প্রস্তুতিরকাজ সম্পন্ন হয়েছে। মুসল্লিদের অবাধ প্রবেশ নিশ্চিত করতে সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোরের সদস্যরা তুরাগ নদে ৭টি ভাসমান পল্টুন সেতু নিমার্ণ করেছেন। ১৬০ একর জমির ওপর নির্মিত সুবিশাল প্যান্ডেলের কাজ, খুঁটিতে নম্বর প্লেট, খিত্তা নম্বর, মাস্তুরাত কামরা, জুড়নেওয়ালি জামাতের কামরা, তাশকিল কামরা, হালকা নম্বর ও খুটি নম্বর বসানোর কাজ আগেই শেষ করা হয়েছে। আগত মুসল্লিদের সুষ্ঠুভাবে বয়ান শোনার জন্য পুরো মাঠে শব্দ প্রতিধ্বনিরোধক ১৮০টি বিশেষ ছাতা মাইক স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়াও প্রথম পর্বের ইজতেমায় অংশগ্রহণকারী মুসল্লিদের ফেলে যাওয়া ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে।

দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমায় আইনশৃংখলা পরিস্থিতি : দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমা উপলক্ষে টঙ্গীতে আইনশৃংখলা জোরদারের লক্ষ্যে ইজতেমার ময়দানসহ আশপাশের এলাকায় বৃহস্পতিবার থেকে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হবে। ইজতেমা মাঠের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বেও প্রায় ৬ হাজার পুলিশসহ র‌্যাব, সাদা পোশাকধারী বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যদের মোতায়েন করা হবে।

এছাড়াও ইজতেমা মাঠসহ আশপাশের পরিস্থিতি প্রত্যক্ষ করার জন্য ল্যাপটপ কম্পিউটারের স্ক্রিনে সার্বক্ষণিক নজর রাখবেন। আকাশে র‌্যাবের হেলিকপ্টার টহল এবং তুরাগ নদে নৌ টহল থাকবে। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যদের সতর্কাবস্থায় রাখা হবে। নিরাপত্তার স্বার্থে বিভিন্ন স্থানে বসানো র‌্যাবের ৯টি ও পুলিশের ১৫টি পর্যবেক্ষণ টাওয়ার থেকে পর্যবেক্ষক দল সার্বক্ষনিক বিশ্ব ইজতেমা ময়দানের পর্যবেক্ষণ করবেন।

অমৃতবাজার/জয়