ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

মাহবুবুল হক শাকিলের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী আজ


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৯:১১ এএম, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭, বুধবার | আপডেট: ০৯:১২ এএম, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭, বুধবার
মাহবুবুল হক শাকিলের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ সহকারী ও কবি মাহবুবুল হক শাকিলের আজ বুধবার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী। গত বছরের এই দিনে তিনি ৪৭ বছর বয়সে রাজধানীর গুলশান-২ এর সামদাদো জাপানিজ কুইজিন নামের এক রেস্তোরাঁয় ইন্তেকাল করেন।

মাহবুবুল হক শাকিলের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে তার নিজ জেলা ময়মনসিংহেও দুই দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- বিকেলে তার পরিবারের উদ্যোগে নগরীর বাঘমারা রোডের বাসভবনে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল এবং বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে নগরীর টাউল হল মাঠে স্মরণসভা। স্মরণসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন- আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডা. দীপু মনি। বিশেষ অতিথি থাকবেন ধর্মমন্ত্রী প্রিন্সিপাল মতিউর রহমান, বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম এমপি, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজবাহ উদ্দিন সিরাজ, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সাত্তার, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক অসিম কুমার উকিল, ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটুসহ স্থানীয় দলীয় নেতাকর্মীরা। স্মরণসভায় পরিবারের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখবেন- প্রয়াত শাকিলের বাবা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক এডভোকেট জহিরুল হক খোকা। এ স্মরণসভায় সবাইকে উপস্থিত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও শাকিল স্মরণসভা উপ-কমিটির সদস্য সচিব এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল।

এছাড়া মাহবুবুল হক শাকিল সংসদ ৮ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদে বাদ জুমা মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে।

২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ সহকারী হিসেবে চারজনকে নিয়োগ দেয়া হয়। মাহবুবুল হক শাকিল তাদের অন্যতম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গত মেয়াদেও তিনি বিশেষ সহকারী (মিডিয়া) ও উপ-প্রেস সচিবের দায়িত্ব পালন করেন।

মাহবুবুল হক শাকিলের জন্ম ১৯৬৮ সালের ২০ ডিসেম্বর টাঙ্গাইলে। তার পৈতৃক নিবাস ময়মনসিংহে। ময়মনসিংহ জেলা স্কুল ও আনন্দমোহন কলেজে পড়াশোনার পর তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর করেন। তার একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া অবস্থায় ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে আসেন শাকিল। প্রথমে তিনি সাংগঠনিক সম্পাদক ও পরে সিনিয়র সহ-সভাপতি হন। ২০০১ সালের অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পরে আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সেল-সিআরআই গঠিত হলে তা পরিচালনার দায়িত্ব পান শাকিল। ২০০৮ সালে নবম সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের পর প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিবের দায়িত্ব পান শাকিল। চার বছর পর তাকে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী (মিডিয়া) করা হয়। ২০১৪ সাল থেকে অতিরিক্ত সচিব মর্যাদায় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারীর দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন তিনি।

তার বাবা এডভোকেট জহিরুল হক খোকা ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি। রাজনীতি থেকে সরকারি দায়িত্বে আসা মাহবুবুল হক শাকিল লেখালেখিও করতেন। তার প্রকাশিত গ্রন্থ ‘খেরোখাতার পাতা থেকে’, ‘মন খারাপের গাড়ী’, ‘ফেরা না ফেরার গল্প’ এবং ‘জলে খুঁজি ধাতব মুদ্রা।

অমৃতবাজার/মাসুদ

Loading...