ঢাকা, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ | ৫ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

শান্তিরক্ষা মিশনে দুই নারী পাইলট


নিজস্ব সংবাদদাতা

প্রকাশিত: ০২:৫৬ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার
শান্তিরক্ষা মিশনে দুই নারী পাইলট

প্রথমবারের মতো জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে যাচ্ছেন বাংলাদেশি দুই নারী পাইলট। তারা হলেন- ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট নাইমা হক ও ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট তামান্না-ই-লুৎফী। বৃহস্পতিবার রাতে ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গোতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনের উদ্দেশে তারা বাংলাদেশ ছাড়বেন।

এ সময় তাদের চোখেমুখে ছিল উচ্ছ্বাস। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তারা বলেন, ‘নারীর ক্ষমতায়ন ও সামরিক বাহিনীর ইতিহাসে এ ঘটনা মাইলফলক হয়ে থাকবে। আমরা কঙ্গোতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে দুর্গম ও ভিন্ন পরিবেশের কাজকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছি।’

সাবেক কৃষি কর্মকর্তা নাজমুল হক ও গৃহিণী নাসরীন বেগমের মেয়ে নাইমা হক ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট হিসেবে ২০১১ সালের ১ ডিসেম্বর কমিশন লাভ করেন। এর আগে ২০১০ সালের ১০ জানুয়ারিতে তিনি ক্যাডেট হিসেবে প্রশিক্ষণ শুরু করেন।

হলিক্রস স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এসএসসি ও এইচএসসি শেষ করে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস থেকে তিনি বিএসসি করেন।

ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট তামান্না-ই-লুৎফী বলেন, বিমানবাহিনীতে বর্তমানে তারা তিন কর্মকর্তা হেলিকপ্টার ফ্লাই করছেন। তিন কর্মকর্তা রয়েছেন ট্রান্সপোর্টে। আরো কিছু নারী প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন বলেও তিনি জানান।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) জানিয়েছে, গত ১৪ বছর ধরে বিমানবাহিনী জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে কাজ করে আসছে। আর গত ৭ বছর বিমানবাহিনীর নারী সদস্যরা শান্তিরক্ষী মিশনে কাজ করছেন। প্রথমবারের মতো দু’জন নারী পাইলটও শান্তিরক্ষা মিশনে যোগ দিচ্ছেন। এ দু’জন নারী পাইলট ঢাকা ছাড়বেন ৭ ডিসেম্বর।

অমৃতবাজার/জয়